নওগাঁয় বজ্রপাতে দুই শিক্ষার্থীসহ ৫ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁয় বজ্রপাতের পৃথক ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীসহ পাঁচজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। শনিবার বিকেলে জেলা সদর, মহাদেবপুর ও আত্রাই উপজেলায় এই সব দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আরো চারজন আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ঝড় ও মেঘের গর্জনের সাথে বজ্রপাত ও বৃষ্টি শুরু হয়। আধাঘণ্টা চলে ঝড়-বৃষ্টি। এসময় সদর উপজেলার ফতেপুর গ্রামের কৃষক আফজাল হোসেন (৬৫) বাড়ির পাশের মাঠে ১০/১২ জন শ্রমিক নিয়ে ধান কাটছিলেন। হঠাৎ বজ্রপাত হলে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

এ ঘটনায় তার বাক-প্রতিবন্ধী স্ত্রী রমিছা ও মেয়ে লিপি বানু আহত হন। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে নিয়ে যায়।

অন্যদিকে সদর উপজেলার শরিসপুর গ্রামের হাসেম উদ্দিনের ছেলে কলেজছাত্র রফিকুল ইসলাম (১৬) বজ্রপাতে মারা গেছে। মহাদেবপুর উপজেলার বিরম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র আরাফাত হোসেন (৮) বিদ্যালয়ে ছিল। বজ্রপাতে সে মারা যায়। সে বিরম গ্রামের কবির উদ্দিনের ছেলে।

একই সময় আত্রাই উপজেলায় দর্শনগ্রামের একটি মাঠে ধান কাটার সময় রতন হোসেন (২২) ও মিলন হোসেন (২০) নামে দুই শ্রমিকমারা গেছেন। নিহত রতন ও মিলন রাজশাহী জেলার বাগমারা উপজেলার স্থীর গ্রামের বাসিন্দা। এ সময় অন্য দুই কৃষক আহত হন।

পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক দুই শিক্ষার্থী ও তিন শ্রমিক বজ্রপাতে নিহত হওয়ার ঘটনার সতত্য নিশ্চিত করেছেন।