মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৩:০৮ পূর্বাহ্ন

করোনার সবশেষ
করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৮৩ জন, শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ২০১ জন আসুন আমরা সবাই আরও সাবধান হই, মাস্ক পরিধান করি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি।  

নাটকীয় জয়ে মেসিরা শিরোপার দুয়ারে

আগের লেগে দুই গোলে হারের ফলে বার্সেলোনার সামনে সমীকরণটা ছিল কঠিন। কোপা দেল রের ফাইনালে উঠতে হলে সেভিয়াকে সেমিফাইনালের ফিরতি লেগে হারাতে হতো ৩-০ ব্যবধানে। ঠিক সে ব্যবধানের নাটকীয় এক জয় নিয়েই ফাইনালে উঠে গেছে কাতালানরা।

আগের লেগে হারলেও দিনচারেক আগে লিগ ম্যাচে এই সেভিয়াকেই ২-০ গোলে হারিয়েছিলেন মেসিরা। সে আত্মবিশ্বাসে ভর করেই দারুণ শুরু পায় বার্সা। উসমান দেম্বেলের কল্যাণে ১২ মিনিটে পেয়ে যায় মহামূল্য প্রথম গোলটাও। দেম্বেলেকে বলটা ছেড়ে বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন মেসি, তবে সেভিয়ার জমাট রক্ষণ এরপর আর পাস বাড়ানোর সুযোগ দেয়নি ফরাসি উইঙ্গারকে। তবে শটটা করার স্পেস ঠিকই পেলেন, বক্সের বাইরে থেকে তার আচমকা শট সেভিয়া রক্ষণ আর গোলরক্ষক থমাস ভাচলিককে হতবাক করে আছড়ে পড়ে জালে।

আগের ম্যাচের মতো বার্সা এদিনও নেমেছিল ৩-৫-২ ছক নিয়ে। পরিবর্তন ছিলনা কোনো। তবে লিগের সেভিয়া ম্যাচের সঙ্গে এদিনের পার্থক্যটা ছিল, সেদিন সেভিয়া অফ দ্য বলে কিছুটা ত্রাস ছড়িয়েছে বার্সা রক্ষণে। এদিন ইউলেন লোপেতেগির দলের পুরো মনোযোগটা ছিল নিজেদের রক্ষণেই।

সময় যতো গড়িয়েছে সেভিয়া নিজেদের রক্ষণে তত বেশি জমাট হয়েছে এক গোলের লিড রক্ষার লক্ষ্যে। সেসব পাশ কাটিয়ে যাও দুয়েকটা আক্রমণ করছিলেন মেসিরা, ভাগ্যও যেন পাশে থাকছিল না তখন। ৬৭ মিনিটে দেম্বেলের ক্রসে আলবার দুর্দান্ত এক ভলি প্রতিহত হয় ক্রসবারে।

এর মিনিট চারেক পর ডিফেন্ডার অস্কার মিনগেসার ভুলে পেনাল্টি হজম করে কাতালানরা। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড লুকাস ওক্যাম্পোসের শটটা ঠেকিয়ে বার্সাকে লড়াইয়ে টিকিয়ে রাখেন মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেন।

খেলা নতুন মোড় নেয় যোগ করা সময়ে। সেভিয়ার ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ফের্নান্দো দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন। আর বার্সেলোনাও চড়ে বসার সুযোগ পায় শেষ কয়েক মিনিটে। গোলটাও এলো তারই সুবাদে। কর্নার থেকে ভেসে আসা বলটা ফেরায় সেভিয়া রক্ষণ, তবে ফিরতি সুযোগে বাঁ প্রান্ত থেকে অ্যান্টোয়ান গ্রিজমানের ক্রসটা আর ফেরাতে পারেনি আন্দালুসিয়ানরা। সেখান থেকে জেরার্ড পিকের দারুণ প্লেসমেন্টে করা হেডার বার্সাকে ফেরায় সমতায়।

শেষ সেকেন্ডের গোলে লড়াইয়ে ২-২ সমতা চলে আসায় খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। তারই পঞ্চম মিনিটে এলো বার্সার জয়সূচক গোলটি। এবারও কারিগর গ্রিজমান। তার ক্রসে মাথা ছুঁইয়েই দলের ডেনিশ ফরোয়ার্ড মার্টিন ব্র্যাথওয়েট এগিয়ে দেন দলকে। গোলটা হজম করেই যেন সেভিয়া মেজাজ হারায়। পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে হলুদ কার্ড দেখেন তিনজন। এরপর লুক ডি ইয়ং রেফারির সিদ্ধান্তে দুয়ো দিয়ে দেখেন লাল কার্ড। নয় জনের দলে পরিণত হওয়া

সেভিয়াকে এরপর বার্সা বেশ চাপেই রেখেছে। কিন্তু গোলের দেখা আর পাননি মেসিরা। তবে ৩-০ গোলের জয়ে ততক্ষণে নিশ্চিতই হয়ে গেছে ফাইনালে উঠে যাওয়াটা।

প্রতিযোগিতার অন্য সেমিফাইনালে আজ লড়বে লেভান্তে ও অ্যাথলেটিক বিলবাও, যে লড়াইয়ের প্রথম লেগে ১-১ গোলে ড্র করেছে দুই দল। তাদের মধ্যে জয়ী দলের বিপক্ষেই মৌসুমে প্রথম শিরোপা কোপা দেল রের জন্য লড়বে বার্সেলোনা।

0
1
fb-share-icon1


শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের প্রিন্স অফ পাবনা

Posted by News Pabna on Thursday, February 18, 2021

© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!