বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ০৫:২২ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

নির্বাচনী সহিংসতায় সারাদেশে নিহত ৯

image_pdfimage_print

প্রথম ধাপের মতোই ব্যাপক ভোট কারচুপি, ব্যালট পেপার ছিনতাই, সংঘাত-সহিংসতার মধ্যদিয়ে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। আর এ ধাপে নির্বাচনী সহিংসতায় ৯ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এর মধ্যে চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে তিনজন এবং ঢাকা, যশোর, মাদারীপুর, জামালপুর, নাটোর ও মানিকগঞ্জে একজন করে নিহত হয়েছেন।

এছাড়া বিভিন্ন স্থানে সহিংসতায় অনেকে আহত হয়েছেন। নির্বাচনে জালভোট ও প্রার্থীদের ভোট বর্জনের মতো ঘটনাও ঘটেছে। দ্বিতীয় ধাপে ৬৩৯টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল ৪টায় শেষ হয়।

নির্বাচন পূর্ববর্তী ও পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন ইউনিয়নে অপ্রীতিকর ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। সংবাদদাতা ও জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে এসব তথ্য জানা গেছে।

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার বাউরিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন।বৃহস্পতিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, মোহাম্মদ ইব্রাহীম (৩৫), মো. জামাল (৩৪) ও  সানাউল্লাহ (৪৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, বিকেল ৪টায় ভোটগ্রহণ শেষে উপজেলার বাউরিয়া ইউনিয়নে কেন্দ্র দখলকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে ব্যাপক গুলি বিনিময়ে তিনজন নিহত হয়।

মাদারীপুর সদর উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ফলাফলকে কেন্দ্র করে পুলিশের গুলিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সুজন মৃধা নিহত নিহত হয়েছে। এসময় পাঁচজন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

সুজন মৃধা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং উপজেলার ধুরাইলের দক্ষিণ বিরঙ্গল গ্রামের বাচ্চু মৃধার ছেলে। সুজন মেম্বর প্রার্থী আব্দুল মোতালেব মৃধার নাতি।

দায়িত্বরত প্রিসাইডিং ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধুরাইল ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ বিরঙ্গল মাদরাসা কেন্দ্রে দুই সদস্য প্রার্থী আব্দুল মোতালেব মৃধা ও আয়ুবালী ফকিরের নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এসময় ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের অভিযোগে পুলিশ তাদের উপর ৪ রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে।

শিক্ষার্থী সুজন মৃধা গুলিবিদ্ধ হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়।

নাটোরের লালপুর সদর ইউনিয়নের বাকনাই কেন্দ্রে দুই মেম্বার প্রার্থী ইউসুফ আলী ও আব্দুল হান্নানের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে এমরান হোসেন বিপ্লব (৩৭) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো অন্তত ৯ জন আহত হয়েছেন।

নিহত বিপ্লব উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের সাজেদুর রহমানের ছেলে। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।


লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহতদের উদ্ধার করে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে বিপ্লব নামে একজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহীর সিডিএম হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে তিনি মারা যান।

সিডিএম হাসপাতালের পরিচালক কোয়েল চৌধুরী বিপ্লবের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

লালপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই তালুকদার জানান, তিনিও মৃত্যুর খবর শুনেছেন। তবে এ ব্যাপারে কেউ কোনো অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ঢাকার অদূরে কেরানীগঞ্জে হযরতপুর ইউনিয়নের মধুরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে দুই পক্ষের গোলাগুলিতে  শুভ ঘোষ (১০) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল বাশার মো. ফখরুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, হযরতপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আয়নাল হোসেন ও বিএনপির প্রার্থী নুরুল হক রিপনের সমর্থকদের গোলাগুলির মাঝখানে পড়ে শিশুটি মারা যায়।

যশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নের ভাতুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দু`পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে বোমাবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় এক ভাজা বিক্রেতা নিহত হয়েছেন।বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহত ব্যক্তির পরিচয় জানা যায়নি।

জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের উত্তর বালুরচর কেন্দ্রে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় রফিকুল ইসলাম (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

তবে পুলিশ সংঘর্ষে নিহত হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। পুলিশ বলছে, সংঘর্ষে নয় বরং ওই ব্যক্তি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার বাঘুটিয়া ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় নমেছা বেগম (৫০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন তার স্বামী ও তিন সন্তান। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসাইন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, প্রথম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ, হামলা, ভাঙচুর ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছিল। সে সময় পিরোজপুর, কক্সবাজার, নেত্রকোনা ও ঝালকাঠি জেলাসহ বেশ কয়েকটি স্থানে ১১ জনের প্রাণ যায়।


পাবনার কৃতী সন্তান অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী

পাবনার কৃতী সন্তান অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী

পাবনার কৃতী সন্তান অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী

Posted by News Pabna on Tuesday, August 18, 2020

পাবনার কৃতি সন্তান নাসা বিজ্ঞানী মাহমুদা সুলতানা

পাবনার কৃতি সন্তান নাসা বিজ্ঞানী মাহমুদা সুলতানা

পাবনার কৃতি সন্তান নাসা বিজ্ঞানী মাহমুদা সুলতানা

Posted by News Pabna on Monday, August 10, 2020

© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!