সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পদ্মায় ফারাক্কার পানি, পাবনার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

ছবি : সংগৃহীত

image_pdfimage_print
ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিহারে বন‌্যার কারণে ভারত ফারাক্কা বাঁধের সবগুলো গেইট খুলে দেওয়ায় বিপদজনক গতিতে পানি বাড়ছে বাংলাদেশের পদ্মায়।

ফলে শুক্রবার (২৬ আগস্ট) সকাল থেকে আকষ্মিক পানি বৃদ্ধি পেয়ে পাবনার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

এতে তলিয়ে গেছে মাঠের পাকা-আধাপাকা আউশ, আমন ধান।

পাবনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, পানি বৃদ্ধির এই হার অব্যাহত থাকলে শনিবারের (২৭ আগস্ট) মধ্যেই পদ্মা নদীর হার্ডিঞ্জব্রীজ পয়েন্টে পদ্মার পানি বিপদসীমা অতিক্রম করবে।

তাঁরা জানিয়েছেন, গত ৩৬ ঘণ্টায় পদ্মায় ৪০ সেন্টিমিটার পানি বেড়েছে।

ফারাক্কা বাঁধের সবগুলো গেইট খুলে দেওয়ায় উজান থেকে নেমে আসা পানির কারণেই পদ্মায় পানি বৃদ্ধি পেয়েছে।

এদিকে পাবনা সদর উপজেলা, সুজানগর উপজেলা এবং ঈশ্বরদী উপজেলার বেশ কিছু ইউনিয়নে দ্রুত পানি বৃদ্ধির ফলে হঠাৎ বন্যায় প্লাবিত হয়েছেন অনেক মানুষ । ঘরবাড়ি ছেড়ে অনেকেই আশ্রয় নিয়েছেন উচু রাস্তায় বা শহরে কোনো স্বজনের বাড়িতে, কেউ কেউ খোলা আকাশের নিচেও রাত কাটাচ্ছেন। বন্ধ হয়ে গেছে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এদিকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা বলছেন, এই গতিতে পানির উচ্চতা বাড়তে থাকলে পদ্মার বিভিন্ন পয়েন্টে ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ‌্যে তা বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে।

ডুবে যাচ্ছে আউশ-আমন ক্ষেত

ডুবে যাচ্ছে আউশ-আমন ক্ষেত

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মীর মোশাররফ হোসেন জানান, গঙ্গার পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে ভারত ফারাক্কা বাঁধের ১০৬টি গেইটের সবগুলোই খুলে দিয়েছে।

এ কারণে গত এক সপ্তাহ ধরে রাজশাহী পয়েন্টে পদ্মার পানির উচ্চতা প্রতিদিন প্রায় ১২ থেকে ১৩ সেন্টিমিটার করে বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানান তিনি।

হিমালয় থেকে উৎপন্ন গঙ্গা নদীর প্রধান শাখা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে, সেখান থেকে নদীটির নাম হয়েছে পদ্মা।

ভাটির দিকে ২৫৮ কিলোমিটার এগিয়ে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দে এসে যমুনার সঙ্গে মিলিত হয়েছে পদ্মা। সেই মিলিত প্রবাহ পদ্মা নামে আরও ১২০ কিলোমিটার এগিয়ে চাঁদপুরে এসে মেঘনার সঙ্গে মিলেছে। পদ্মা-মেঘনার মিলিত প্রবাহ মেঘনা নামে পৌঁছেছে বঙ্গোপসাগরে।

গঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশের আগে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মালদহ ও মুর্শিদাবাদ জেলায় ভারতের ফারাক্কা বাঁধ; যা চার দশক ধরে নানা ধরনের পরিবেশ বিপর্যয় ডেকে আনছে বাংলাদেশের জন‌্য।

রাজশাহী পাউবো বলছে, গত ১৭ আগস্ট সকাল ৯টা থেকে শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত পদ্মায় পানির উচ্চতা ১ মিটার ৫৮ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে।

বন‌্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের তথ‌্য অনুযায়ী, শুক্রবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় পদ্মা নদীতে পানির উচ্চতা পাঙ্খা পয়েন্টে ১২ সেন্টিমিটার, রাজশাহী পয়েন্টে ১১ সেন্টিমিটার ও হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্টে ১৩ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে।

শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ওই তিন পয়েন্টে বিপৎসীমার যথাক্রমে ১৭, ২২ ও ২১ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হাচ্ছিল পদ্মা।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের মীর মোশাররফ হোসেন বলেন, “এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে শনিবার রাতে তা বিপৎসীমা (১৮ দশমিক ৫০ সেন্টিমিটার) অতিক্রম করতে পারে।”

কুষ্টিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী নৈমূল হকও একই কথা বলেছেন।

“যেভাবে পানি বাড়ছে এই ধারা চলতে থাকলে পদ্মা নদীর পানি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিপদসীমা অতিক্রম করবে। পদ্মার পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এর শাখা গড়াই নদীতেও পানি বাড়ছে।”

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!