বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনার আদালত প্রাঙ্গন থেকে অপহরণের পর ৯ লক্ষ টাকা আদায়!

image_pdfimage_print

পাবনা অফিস : পাবনার আদালতে হাজিরা দিতে এসে অপহরণের শিকার হয়েছেন এক ব্যাক্তি।

প্রকাশ্যে অপহরনের পর সন্ত্রাসীর দুই দফায় ঐ ব্যাক্তির কাছ থেকে ৯ লক্ষ টাকা আদায় করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পুলিশ জানায়, ঢাকার দারুসসালাম থানার ২০/৩ হরিরামপুর এলাকার ব্যবসায়ী খন্দকার দেলোয়ার হোসেন (৭১) তার এক সহকর্মি ঢাকার মীরপুর-১ এর বাসিন্দা সামিউল্লাহ বাবুল (৫০) কে সঙ্গে নিয়ে গত বুধবার (২১ অক্টোবর) মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে জামিন নিতে পাবনার চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটে আদালতে আসেন।

হাজিরা শেষে জামিন পাওয়ার পর আদালতের গেটে আসা মাত্র বেলা ১১ টার দিকে পাবনা শহরের দক্ষিণ রাঘববপুর মিশন হাউসের পেছেনের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে আমিরুল ইসলাম, সাঁথিয়া উপজেলার বালিয়াকান্দি ক্ষেতুপাড়া গ্রামের মৃত জাবেদ মোল্লার ছেলে ইউনুস আলী সহ আরও ২ জন সিএনজি নিয়ে এসে দুজনকে অপরহনের চেষ্টা করে।

এ সময় সামিউল্লাহ বাবুল পালিয়ে গেলেও সন্ত্রাসীরা খন্দকার দেলোয়ারকে সিএনজি করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে সেখানে নিয়ে তাকে মারধর করে এবং ১০ লক্ষ টাকা দেওয়ার জন্য বলা হয়।

টাকা দিকে অস্বীকার করায় তাকে অমানষিক নির্যাতন করা হয়। পরে জনতা ব্যাংক পাবনা বাজার শাখার মাধ্যমে সাভার থেকে এক লক্ষ টাকা অনলাইনে আনা হয়।

এতে সন্ত্রাসীদের মন না ভরলে আরও ৯ লক্ষ টাকার জন্য চাপ দেয়। পরে খন্দকার দেলোয়ারের স্ত্রী মোছা নাছিমা খাতুন সাভার থেকে এসে অপহরনকারীদের আরও ৮ লক্ষ টাকার চেক দেন।

কিন্তু নগদ টাকা না পাওয়ায় সন্ত্রাসীরা দেলোয়ার ও তার স্ত্রীকে আটকে রাখে।

শুক্রবার সকালে সন্ত্রাসীরা তালা না লাগিয়ে নাস্তা আনতে গেলে স্বামী স্ত্রী কৌশলে পালিয়ে সরাসরি পাবনা সদর থানায় এসে মামলা দায়ের করে।

ভুক্তভোগি ব্যবসায়ী খন্দকার দেলোয়ার হোসেন বলেন, তাকে তিনদিন আটকে রেখে মারধর এবং তার স্ত্রী দুই দিন আটকে রাখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পাবনা সদর থানার ওসি নাছিম আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।

আসামীদের এখনও চিহ্নিত করা যায়নি। তবে মোবাইল ট্রাকিং করে ঘটনার রহস্য উদঘাটন করা হবে।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!