বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় আইনগত সহায়তা সংস্থার মতবিনিময়

ফাইল ফটো

image_pdfimage_print
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

শহর প্রতিনিধি : পাবনায় গত দেড় বছরে আইনগত সহায়তাপ্রাপ্তির জন্য জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থায় মোট ৮১৫টি আবেদন জমা পড়েছে। এর মধ্যে পারিবারিক কলহসহ বিভিন্ন মামলায় অসহায় নারী বিচারপ্রার্থীর সংখ্যা ৫১৯ জন। যাঁদের মধ্যে সহায়তা পেয়েছেন প্রায় ৩৫০ জন।

গত শুক্রবার (২৪ জুন) বিকেলে লিগ্যাল এইড সেবা নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য জানানো হয়। জেলা জজকোর্ট মিলনায়তনে পাবনার জ্যেষ্ঠ দায়রা জজ ও সংস্থার চেয়ারম্যান আবদুল কুদ্দুস মিয়ার সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন বিশেষ জজ লিয়াকত আলী মোল্লা, মুখ্য বিচারিক হাকিম নাজিমুদ্দৌলা প্রমুখ।

সভায় উত্থাপন করা তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ২০১৫ সালে সংস্থার কার্যালয়ে আইনগত সহায়তার জন্য আবেদন করেছেন ৬১০ জন দুস্থ ও অসহায় বিচারপ্রার্থী। এর মধ্যে ৩৯৭ জন নারী ও ২১৩ জন পুরুষ। পারিবারিক কলহ নিয়ে বিচারের আবেদন করেছেন ১৭০ জন নারী ও একজন পুরুষ। ফৌজদারি মামলার ক্ষেত্রেও নারী আবেদনকারীর সংখ্যা বেশি।

ফৌজদারি অপরাধের মামলায় সহায়তা চেয়ে আবেদন করেছেন ২১৫ জন নারী ও ১৫৬ জন পুরুষ। এদের মধ্যে আইনগত সহায়তা পেয়েছেন ৪০৬ জন। মোট মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে ৫৬৩টি। ২০১৬ সালের জানুয়ারি থেকে এপ্রিল মাস পর্যন্ত চার মাসের আবেদন ও মামলা বিশ্লেষণ করেও নারী আবেদনকারীর সংখ্যা বেশি দেখা গেছে। এই চার মাসে আবেদন করেছেন মোট ২০৫ জন। এর মধ্যে নারী আবেদনকারী ১২২ ও পুরুষ ৮৩ জন। পারিবারিক কলহের বিচার চেয়ে আবেদন করেছেন ৬৯ জন নারী ও ৬ জন পুরুষ।

আবদুল কুদ্দুস মিয়া জানান, জন্মসূত্রে প্রতিটি মানুষ ন্যায়বিচার পাওয়ার অধিকারী। কিন্তু আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে অনেকেই এই ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হন। তাঁদের সহযোগিতার জন্যই জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা কাজ করছে। এখানে সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে নারী-পুরুষ কোনো ভেদাভেদ নেই।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!