বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১২:০১ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় আ.লীগ নেতা এনামূল হত্যাকারীদের শাস্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

image_pdfimage_print

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনার হেমায়েতপুরে আওয়ামী লীগ নেতা এনামূল হককে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে নিহতের পরিবারের স্বজনেরা।

রোববার দুপুর ১২ টায় পাবনা প্রেসক্লাব অডিটোরিয়ামে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

নিহত এনামূল হক পেশায় ছিলেন মুদিদোকানী। সে হেমায়েতপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন।

লিখিত বক্তব্য ও এজাহারসূত্রে জানা যায়, পাবনা সদরের হেমায়েতপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের খোকনের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী শিল্পী খাতুন মোবাইল ফোনে প্রেম করে সদর উপজেলার দুবলিয়া গ্রামের রইচ উদ্দিনের সাথে।

গত ৮ জুলাই রইচ উদ্দিন ওই মেয়ের বাড়ীতে যায়। তখন এলাকার সন্ত্রাসীরা রইচ উদ্দিন ও শিল্পী নামের ওই মহিলাকে আটক করে টাকা দাবী করে।

ওই মহিলা সন্ত্রাসীদের ৩ হাজার টাকা দেয়। এরপর সন্ত্রাসীরা রইচকে তাদের হাতে তুলে দিতে বলে। এরমধ্যে গ্রামের লোকজন জড়ো হয়।

ওই এলাকার মমিন নামের এক ব্যক্তি সন্ত্রাসীদের অজ্ঞাতে রইচ নামের ওই ব্যক্তিকে অন্যত্র সরিয়ে দেয়। এই অপরাধে সন্ত্রাসীদের সাথে মমিনের বাকবিতন্ডা হয়।

তখন নিহত এনামূলসহ এলাকার লোকজন ঘটনাস্থলে জড়ো হলে উভয় গ্রুপের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়।

এ সময় সন্ত্রাসী গ্রুপ এলাকা ছেড়ে চলে যায়। এরপর রাত ৮টার দিকে সংঘবদ্ধ হয়ে ইসলামপুরে গিয়ে এনামূল ও সমর্থকদের উপর হামলা চালিয়ে দোকানপাট ভাংচুর, মারপিট ও লুটপাট শুরু করে সন্ত্রাসী গ্রুপ।

এ সময় এনামূল এসে সন্ত্রাসীদের বাধা দিলে তাকে উপুর্যপরি কুপিয়ে ও গুলি করে চলে যায় সন্ত্রাসীরা।

গুলিতে এনামুল ও তার ভাই ইসহাক আহত হয়। মুমুর্ষ আহত এনামূল ও তার ভাই ইসহাককে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাবার পথে এলাকার শাহজাহান ওরফে সাজাই হাজির মিল ঘরে কাছে পৌছালে ওই সন্ত্রাসীরা তাদের গতিরোধ করে দ্বিতীয় দফায় এনামূল, এনামুলের স্ত্রী, সন্তান ও ভাইকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এ সময় ঘটনাস্থলেই এনামুলের মৃত্যু হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহত এনামুলের ভাই আহত ইসহাক আলী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাবা আকাতুল্লাহ প্রামানিক, মা সুফিয়া খাতুন, এনামুলের স্ত্রী রুবিয়া খাতুন, ছেলে আল আমিন, মেয়ে রূপালী খাতুন প্রমুখ।

ঘটনরার পরদিন নিহত এনামুলের স্ত্রী রুবিয়া খাতুন বাদী হয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের ১৩ জন নামীয় নেতাকর্মি, সমর্থকসহ অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনের নামে একটি হত্যা মামলা ( মামলা নং ১৮, তাং ৯.৭.১৭) দায়ের করেছেন।

মামলা তুলে নেওয়ার জন্য নিহতের পরিবারকে হুমকি দিচ্ছে সরকারী দলের প্রভাবশালী এসব সন্ত্রাসীরা বলে অভিযোগ করা হয়।

তবে পুলিশ এখনও পর্যর্ন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। অবিলম্বে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানান স্বজনেরা।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!