সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ০৪:৪৮ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিকের ল্যাপটপ চুরি: পুলিশি তৎপরতায় উদ্ধার

বার্তা সংস্থা পিপ, পাবনা : ব্যাপক পুলিশি তৎপরতার ফলে চুরি যাওয়া ল্যাপটপ ফিরে পেলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রবীণ সাংবাদিক ও কলামিষ্ট রণেশ মৈত্র।

বৃহস্পতিবার (০২ জুলাই) রাত ১১ টার দিকে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহমেদ রণেশ মৈত্র’র বাড়ীতে গিয়ে তার হাতে ল্যাপটপ হস্তান্তর করেন।

পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান, সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ পাবনা জেলা শাখার সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা পুরবী মৈত্রসহ বিপুল সংখ্যক সাংবাদিক এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রবীণ সাংবাদিক ও কলামিষ্ট রণেশ মৈত্র জানান, গত ২৫ জুন দিনের বেলা তার বেলতলা রোডের বাসা থেকে এইচপি ব্যান্ডের একটি ল্যাপটপ চুরি হয়। কিন্তু চোররা চার্জার নিতে পারেনি।

বিষয়টি তিনি পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম ও সদর থানার ওসি নাছিম আহমেদকে অবহিত এবং ল্যাপটপ উদ্ধারের অনুরোধ করেন।

তিনি জানান, ঐ ল্যাপটপের মধ্যে তার সাংবাদিকতা ও ব্যাক্তিগত জীবনের অনেক গুরুত্বপুর্ন তথ্যাদি রয়েছে।

পুলিশ জানায়, পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে ল্যাপটপ উদ্ধারে সদর থানার ওসি নাছিম আহমেদ ও সদর পুলিশ ফাড়ির ইন্সপেক্টর আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে একটি চৌকশ বাহিনী গঠন করেন।

তারা শহরের প্রতিটি কম্পিউটার দোকানে অনুসন্ধান চালান। এ ছাড়া শহরের আশপাশের সন্দেহভাজন অন্তত ৫০ জন ‘চোর’ কে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

কিন্তু কোন তথ্য নিতে পারেননি।

এর মধ্যে বুধবার (০১ জুলাই) শহরের সাধুপাড়ার জুটপট্রির আমিরুল (৩০) নামের একজন মাদকাসক্তকে পুলিশ প্রেসার কুকার চুরির অভিযোগে অন্যস্থান থেকে আটক করে কারাগারে পাঠায়। কিন্তু ল্যাপটপের ব্যাপারে তাকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করেনি।

এরই মধ্যে শহরের এআর প্লাজার একটি কম্পিউটারের দোকানে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই ছেলে এইচপি ব্যান্ডের একটি চার্জার কিনতে দোকানে আসে। ঐ দোকানদার তখন পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঐ দুই ছাত্রকে আটক করে তাদের বাড়ী থেকে এইচপি ব্যান্ডের ঐ ল্যাপটপটি উদ্ধার করে।

আটককৃত যুবকরা জানান, তারা শহরের বড় ব্রীজ এলাকার জনৈক তামিমের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা এই ল্যাপটপটি কিনেছিলেন।

পরে পুলিশ তামিমকে আটক করলে সে পুলিশকে জানায়, শহরের সাধুপাড়ার জুটপট্রির আমিরুলের কাছ থেকে সে ৩ হাজার টাকায় ল্যাপটপটি কিনেছিলেন।

তবে চোরাই ল্যাপটপ কেনার কারণে তারা অনুতপ্ত হয়ে রণেশ মৈত্রের কাছে ক্ষমা চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হওয়ায় তিনি তাদের ক্ষমা করে দেন।

একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রবীণ সাংবাদিক ও কলামিষ্ট রণেশ মৈত্র বলেন, আসলে পুলিশ যে কাজটি করেছে তা সত্যই প্রশংসনীয়।

পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি তারা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখেছেন তাই ল্যাপটপ উদ্ধার সম্ভব হয়েছে।

এ ক্ষেত্রে পাবনা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সর্বাত্মক সহযোগিতা ছিল বলে এটি সম্ভব হয়েছে বলে পুলিশ সুপার জানান।

error20
fb-share-icon0
Tweet 10
fb-share-icon20


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
error: Content is protected !!