শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় তীব্র যানজট, শহরবাসী অতিষ্ঠ

পাবনায় তীব্র যানজট, শহরবাসী অতিষ্ঠ

image_pdfimage_print

নিজস্ব প্রতিবেদক : নিয়ন্ত্রণহীনভাবে যানবাহন বৃদ্ধি, পর্যাপ্ত পার্কিংব্যবস্থা না থাকা ও ফুটপাত দখল—এই তিন কারণে পাবনা শহরে প্রতিদিন তীব্র যানজট দেখা দিচ্ছে।

গ্রীষ্মের প্রচণ্ড রোদ ও ভাপসা গরমে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকা পড়ে অতিষ্ঠ হয়ে উঠছেন শহরবাসী। পৌর কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়টি জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (০৮ জুন) সরেজমিনে দেখা যায় তীব্র যানজটে আটকে পড়া অসংখ্য রিকশার দীর্ঘ সারি।

শহরের মধ্যকার আবদুল হামিদ সড়কের দুই পাশে এলোমেলোভাবে বিভিন্ন যানবাহন দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। শহরের খেয়াঘাট সড়ক মোড়, ইন্দারা মোড়, আতাইকুলা সড়কের চাপা মসজিদ মোড় ও নিউমার্কেট এলাকায় একই অবস্থা।

ট্রাফিক মোড় থেকে মুক্তমঞ্চ পর্যন্ত সড়কের উভয় পাশে দোকানের বর্ধিতাংশ ও অস্থায়ী দোকান বসিয়ে ফুটপাত দখল করা হয়েছে।

কয়েকজন রিকশারোহী জানান, সকাল নয়টার পর থেকেই যানজটের তীব্রতা বেড়ে যায়। চলে রাত নয়টা পর্যন্ত। আবদুল হামিদ সড়কের ট্রাফিক মোড় থেকে ইন্দারা মোড় পর্যন্ত ৫০০ গজ রাস্তা পার হতে ১০ থেকে ২০ মিনিট লেগে যায়।

পাবনা পৌরসভা সূত্র জানায়, শহরের আয়তন ১৮ দশমিক ৬৪ বর্গকিলোমিটার। পৌরসভায় ১৫টি ওয়ার্ড ও ৩৪টি মহল্লা রয়েছে। আবদুল হামিদ সড়কে শহরের মূল অবকাঠামো তৈরি হয়েছে।

এই সড়কের দুই পাশে গড়ে উঠেছে বড় বড় বিপণিবিতান, ব্যাংক, বিমাসহ বিভিন্ন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান।

ছোট্ট এই শহরে পৌরসভার লাইসেন্সধারী রিকশা রয়েছে প্রায় ১০ হাজার। এর বাইরে লাইসেন্সবিহীন রিকশা আছে আরও প্রায় ৯ হাজার।

গত দুই বছরে নতুন করে যোগ হয়েছে সিএনজিচালিত প্রায় তিন হাজার ও ব্যাটারিচালিত ছয় হাজার অটোরিকশা।

এ ছাড়া বাইসাইকেল, মোটরসাইকেল, প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাসসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যক্তিগত যানবাহন রয়েছে আরও প্রায় ১০ হাজার।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, পর্যাপ্ত পার্কিংব্যবস্থা না থাকা, ব্যস্ত সড়কের ফুটপাত দখল এবং ব্যাটারি ও সিএনজিচালিত অটোরিকশাসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহন বেড়ে যাওয়ায় শহরে প্রতিনিয়ত যানজট দেখা দিচ্ছে।

পাবনা পৌরসভার মেয়র কামরুল হাসান মিন্টু বলেন, প্রথম দিকে পার্কিংব্যবস্থা না রেখে কিছু ভবন তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু এখন প্রতিটি ভবন অনুমোদনের ক্ষেত্রে পার্কিংয়ের বিষয়টি দেখা হয়। পার্কিংব্যবস্থা ছাড়া কোনো নতুন ভবনের অনুমোদন দেওয়া হচ্ছে না।

ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার জন্য সরকারি নীতিমালা নেই। তবে পৌরসভার উদ্যোগে এগুলোকে লাইসেন্সের আওতায় আনা হবে। আর ফুটপাত দখলমুক্ত করতে হলে পুলিশ, প্রশাসন ও পৌরসভাকে সম্মিলিতভাবে উদ্যোগ নিতে হবে।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!