রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১১:০৪ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় দুদকের মামলায় পিআইও অফিস সহকারির ১৫ বছরের জেল

পাবনায় দুদকের মামলায় পিআইও অফিস সহকারির ১৫ বছরের সাজা

image_pdfimage_print

পাবনা প্রতিনিধি : মিথ্যা প্রতারণা ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে দূর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) অফিসের অফিস সহকারী আকতার হোসেনকে জেল ও অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন পাবনার একটি আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পাবনার বিজ্ঞ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক লিয়াকত আলী মোল্লা আসামী আকতার হোসনেকে দীর্ঘ শুনানী শেষে ৪০৯ ধারায় ৭ বছরের কারাদণ্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ২ মাসের কারাদণ্ড এবং ৪৬৮ ধারায় ৫ বছরের কারাদণ্ড ও ৩ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ মাসের কারাদণ্ড এবং ১৯৮৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় ৩ বছর সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা পিআইও অফিসের অফিস সহকারি পদে ২০/১০/৯৬ থেকে ২৪/০৭/২০০০ ইং পর্যন্ত আসামী আকতার হোসেন কর্মরত থাকাবস্থায় মিথ্যা, প্রতারণা, অপরাধজনক বিশ্বাসভঙ্গ ও ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে ১৯৯৮-৯৯ অর্থ বছরে বরাদ্দকৃত গৃহ নির্মাণ মঞ্জুরী বাবদ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট হতে কৌশলে অননুমোদিত ৭ টি চেকের মধ্যে ৩ টি চেকে কৌশলে স্বাক্ষর করিয়ে ও ৪টি চেকে ইউএনও, সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর নিজে জাল করে ১ লাখ ৯৫ হাজার ৫০০ টাকা ব্যাংক হতে উত্তোলন করে নগদে ৬৫ হাজার টাকা ব্যাংকে জমা করে অবশিষ্ট ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা আত্মসাত করার অপরাধে দ: বি: ৪০৯/৪২০ ধারা এবং ১৯৪৭ সনের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় দেওয়ান সফিউদ্দিন, সাবেক পরিদর্শক, বর্তমানে সহকারী পরিচালক, দুর্নীতি দমন কমিশন, প্রধান কার্যালয়, ঢাকা অনুসন্ধান পূর্বক বাদী হয়ে তাড়াশ থানার মামলা নং-০৭, তারিখ-১১/১১/০২ খ্রি: দায়ের করেন।

পরবর্তীতে মামলাটি তদন্তের জন্য সহকারী পরিচালক রিজিয়া খাতুনের নামে হাওলা করা হয়।

তিনি তদন্ত শেষে আসামীর বিরুদ্ধে জাল জালিয়াতি ও প্রতারণার মাধ্যমে ৭ টি চেকের মাধ্যমে উক্ত টাকা আত্মসাতের জন্য এজাহারে বর্ণিত অভিযোগ প্রাথমিক ভাবে প্রমাণিত হওয়ায় দ: বি: ৪০৯/৪২০/৪৬৭/ ৪৬৮/৪৭১ ধারা তৎসহ ১৯৪৭ সনের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে বিজ্ঞ আদালতে চার্জশীট নং-১০৯, তারিখ-২৯/১২/২০১১ খ্রি: দাখিল করেন।

বিজ্ঞ আদালত বিচার প্রক্রিয়া শেষে বৃহস্পতিবার উপর্যুক্ত রায় প্রদান করেন।

দুদকের পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সিনিয়র এড. মো: ওবায়দুল হক।

মামলার আসামী বর্তমানে পলাতক রয়েছে বলে জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!