পাবনায় পরিবহণ ধর্মঘট, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

পাবনায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

পাবনায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

স্টাফ রিপোর্টারঃ পাবনার বাস শ্রমিকদের কাছে চাঁদাবাজী, মারধর, হয়রানীর প্রতিবাদে পাবনায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়ন ও মালিক সমিতি। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সকাল ৬টা থেকে শুরু হয়েছে এ ধর্মঘট। আর এই ধর্মঘটের কারনে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা।

অনেককে কষ্ট করে পৌছাতে হচ্ছে তাদের কর্মক্ষেত্রে। পাবনা থেকে সকল রুটে হঠাৎ বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেক যাত্রীকে পড়তে হয়েছে চরম সমস্যায়।
পাবনা জেলা বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক কালাম আহমেদ জানান, উল্লাপাড়াতে মাঝে মাঝেই পাবনার পরিবহন শ্রমিকদের ওপর অন্যায় নির্যাতন চালানো হয়। প্রশাসনকে বারবার তাগিদ দিলেও কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি। যেহেতু ঐ সড়ক দিয়েই পাবনার বেশিরভাগ গাড়ি যাতায়াত করে, একারনে ওখানকার শ্রমিকরা অন্যায় আচরণ করে ইচ্ছেমতো। ফলে পাবনার পরিবহন মালিক ও শ্রমিকেরা যৌথভাবে এই সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে যে এর সুষ্ঠু আইনগত ব্যবস্থা না হলে ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে।

তিনি প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের মাধ্যমে পরিবহন মালিকদের ব্যবসা ও শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আহবান জানান।

পাবনা জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সিনিয়র সহ-সভাপতি জীবন সরকার জানান, বেশকিছুদিন ধরে উল্লাপাড়ার মালিক-শ্রমিক সমিতির নেতারা পাবনার বাস শ্রমিকদের কাছ থেকে প্রতিনিয়ত চাঁদাবাজী করে আসছে। চাঁদা না দিলে বাস শ্রমিকদের মারধর ও নানাভাবে হয়রানী করে। এ বিষয়ে তাদের বারবার নিষেধ করা হলেও তারা শোনেননি। তাই পাবনার বাস শ্রমিকদের কাছে চাঁদাবাজী, মারধর ও হয়রানীর প্রতিবাদে মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সকাল ৬টা থেকে পাবনায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে।
সোমবার সন্ধ্যায় জেলা পরিবহণ মালিক সমিতি ও জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের যৌথ সভা থেকে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

রাত আটটার পর সমিতির পক্ষ থেকে পাবনা শহরে মাইকিং করে বাস ধর্মঘটের বিষয়টি সবাইকে অবহিত করা হয়। এ বিষয়ে সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে বলেও জানান জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সিনিয়র সহ-সভাপতি জীবন সরকার।