পাবনায় বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারি সমিতির কর্মবিরতি পালন

মিজান তানজিল, পাবনা : পাবনায় সচিবালয়ের ন্যায় পদ-পদবী পরিবর্তনের দাবিতে পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করেছে বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারি সমিতি (বাকাসস) জেলা শাখা।

আজ সকাল ৯টায় হাজিরা খাতা স্বাক্ষর করে একটানা বিকেল ৫টা পর্যন্ত অফিস চত্বরে এ কর্মসূচী পালন করেন তারা।

১৫ থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত এ কর্মসূচীর প্রথম দিনে কালেক্টরেটের সকল কর্মচারী দাবি বাস্তবায়নে স্ব স্ব দপ্তরের সকল কাজ বন্ধ করে অফিস চত্বরে অবস্থান নেয়।

১ম দিনের কর্মসূচীর সূচনা বক্তব্যে সমিতির সভাপতি আলহাজ আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ২০০১ সাল হতে আমরা কালেক্টরেট কর্মচারীগণ এ আন্দোলন করে আসছি।

আমাদের ন্যায় সঙ্গত দাবি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সদয় সম্মতি দিয়েছেন তার নির্দেশনা মোতাবেক গত ২৩/০২/২০২০ তারিখে ১৩৩নং স্মারকে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পত্র প্রেরণ করেন কিন্তু উক্ত পত্রের নির্দেশনা আজও বাস্তবায়ন হয়নি।

তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ক্ষমতা কার বেশী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী? না কি সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের?

সাধারন সম্পাদক মহিউল বলেন, আমরা আজ ২০টি বছর আমাদের ন্যায় সঙ্গত দাবি বাস্তবায়নের জন্য আন্দোলনসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট স্বারকলিপি প্রদান করেছি দাবির বিষয়ে যৌক্তিকতা তুলে ধরেছি কিন্ত দু:খের বিষয় তারা আমাদের দাবিকে যৌক্তিক মনে করলেও সেখানেই শেষ আজও তা আলোর মুখ দেখেনি।

ইতোমধ্যে আমাদের নিচের গ্রেডের অনেককে ১০ম গ্রেড প্রদান করেছেন কিন্তু আমরা কালেক্টরেট কর্মচারিরা সরকারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন কাজ করি অথচ আমাদের ভাগ্যের কোন উন্নতি নাই।

আমরা সারা দেশে এবার যে আন্দোলন শুরু করেছি দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এটা চলমান থাকবে।

কর্মসূচীতে আরো বক্তব্য দেন এবিএম শফিকুল ইসলাম, মো: ইনসাফ আলী, মো: আইয়ুব আলী, মো: জিলাল উদ্দিন, মো: মেহেদী হাসান, মো: আব্দুস সবুর, মো: মাহাবুল ইসলাম, মো: সাইদুল ইসলাম সহ আরো অনেকেই।