শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩০ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় বাল্যবিয়ে নিবন্ধনের দায়ে কাজীর কারাদণ্ড

image_pdfimage_print

স্থানীয় প্রতিনিধি : পাবনার সুজানগরে বাল্য বিয়ে নিবন্ধন করার সময় জাহাঙ্গীর হোসেন খান নামে এক কাজীকে (নিকাহ রেজিস্ট্রার) হাতেনাতে আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

পরে তাকে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ছয়টায় সুজানগর উপজেলার তাঁতীবন্দ ইউনিয়নের ফুলালদুলিয়া গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয় ।

দণ্ডপ্রাপ্ত জাহাঙ্গীর হোসেন খান তাঁতীবন্দ ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত কাজী ও উপজেলা কাজী সমিতির সভাপতি। ইউনিয়নে নিকাহ রেজিস্ট্রার হিসেবে দীর্ঘদিন থেকে কাজ করছেন।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার তাঁতীবন্দ ইউনিয়নের ফুলালদুলিয়া গ্রামের রায়হান আলীর, স্থানীয় জাহানারা কাঞ্চন স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে সুমা খাতুন (১৫) পাবনা জেলার ফরিদপুর উপজেলার ডেমরা গ্রামের গোলাম কিবরিয়ার ছেলে মোঃ মনিরুল ইসলামের বিয়ের নিবন্ধন করতে আসেন কাজী।

এ সময় স্থানীয়রা ইউএনও এবং পুলিশে খবর দেন।

খবর পেয়ে সুজানগর উপজেলা ইউএনও, পুলিশসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং বিয়ে নিবন্ধনের সময় কাজীকে হাতেনাতে আটক করেন।

এসময় তার কাছে থাকা অবৈধভাবে বিয়ে রেজিস্ট্রির বিভিন্ন কাগজপত্র জব্দ করেন। পরে তাকে সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। এ সময় বর ও কনেসহ উভয় পক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ রওশন আলী জানান, বাল্য বিয়ে নিবন্ধনের কারনে জাহাঙ্গীর হোসেন খানের নিকাহ নিবন্ধন বাতিলের পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সুজানগর উপজেলাকে বাল্যবিবাহ মুক্ত করতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। এই বাল্য বিয়ে বন্ধ হওয়ার পাশাপাশি কাজীর সাজা হওয়ায় অন্য অভিভাবকেরা সচেতন হবেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সুজানগর থানার অফিসার ইনচার্জ বদরুদ্দোজা জানান, ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক (ইউএনও), কাজী জাহাঙ্গীর হোসেন খানকে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করায় সাজাপ্রাপ্ত কাজীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!