রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৫০ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় সুচিত্রা সেনের বাড়িতে হবে জাদুঘর

পাবনার মেয়ে মহানয়িকা সুচিত্রা সেন

image_pdfimage_print

বার্তাকক্ষ : পাবনায় সুচিত্রা সেনের বাড়িতে গড়ে তোলা হবে জাদুঘর। বাংলাদেশে জন্ম নেয়া ভারতের কলকাতার বিখ্যাত এই অভিনেত্রীর তৃতীয় মৃত্যু বার্ষিকীতে সুচিত্রা সেনের ভক্তরা পাবনার এই বাড়িটি বিষয় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখালে তার উত্তরে সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর জানান, দ্রুতই সুচিত্রা সেনের বাড়িটি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য উদ্যোগ নেয়া হবে এবং সেখানে একটি জাদুঘর স্থাপন করা হবে। ২০১৭ সালের মধ্যেই এই কাজ সম্পন্ন হবে বলে জানান তিনি।

২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্টের আদেশে দখলমুক্ত করা হয় সুচিত্রা সেনের বাড়িটি। কিন্তু এরপর থেকে অব্যবহৃত অবস্থায় আছে এই বাড়ি। বেসরকারি গণমাধ্যমে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এই বাড়ির দরজা-জানালাসহ বেশ কিছু অংশ খুলে নিয়ে গেছে চোর। কিন্তু এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। অন্যদিকে, ঘরটিতে এলাকার স্থানীয়দের যাতায়াত সম্পূর্ণ বন্ধ। সে কারণে নেশা করার জন্য স্থানীয় দুষ্কৃতিকারীদের অভয়ারণ্য হয়ে উঠেছে সুচিত্রা সেনের বাড়ি।

সুচিত্রা সেনের তৃতীয় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ঘরোয়া পূজার অনুষ্ঠানে তার নাতনী রাইমা সেন বলেন, বাংলাদেশের মানুষ তাকে ভালবাসে। আমি মনে করি। তাদের উচিত এই বাড়িটি নিয়ে কিছু করা। তারা (বাংলাদেশের মানুষ) দাবি করে, কলকাতার মানুষের থেকেও বাংলাদেশের মানুষ সুচিত্রা সেনকে বেশি ভালবাসে। এটা সত্য হলে তাদের উচিত বাড়িটি মেরামত করা এবং কাজে লাগানো। যদি এই বাড়িটি আমাদের অধীনে থাকত, তাহলে নিশ্চয়ই আমরা এটি রক্ষণাবেক্ষণের ব্যবস্থা নিতাম।

এ প্রসঙ্গে সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, দীর্ঘ যুদ্ধ শেষে এই বাড়ি থেকে অবৈধ বাসিন্দাদের উচ্ছেদ করতে সক্ষম হয়েছি আমরা। কিন্তু ততদিনে বাড়িটির বেশকিছু ক্ষতি হয়েছে। ১০ মাস আগে স্থানীয় প্রশাসন ও সুচিত্রা সেন স্মৃতি সংগ্রহশালাকে এই বাড়িটি রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা কাজ শুরু করছে। এই বাড়িটিতে একটি জাদুঘর তৈরি করা হবে।

তিনি আরো বলেন, এখনো সেখানে কাজ শুরু হয়নি, এটি দুঃখজনক। কিন্তু আগামী দুই মাসের মধ্যে কাজ শুরু হবে বলে নিশ্চয়তা দেন সংস্কৃতি মন্ত্রী। তিনি বলেন, এই জাদুঘরে তার (সুচিত্রা সেনের) ছবি এবং তার সম্পর্কে লেখার পাশাপাশি সেখানে একটি চলচ্চিত্র আর্কাইভ প্রতিষ্ঠার কথা ভাবছি আমরা। এখানে মুনমুন সেনকে আমন্ত্রণ জানাবো আমরা। আশা করছি ২০১৭ সালে মধ্যে আর্কাইভ ও লাইব্রেরি তৈরির কাজ শেষ হবে।- টাইমস অব ইন্ডিয়া।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!