বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪০ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় ২৪ ঘন্টায় ২ খুন

পাবনায় ২৪ ঘন্টায় ২ খুন

image_pdfimage_print

বার্তাকক্ষ : গেল ২৪ ঘন্টায় পাবনায় এক অটোরিকশা চালক ও অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির লাশ পাওয়া গেছে; যাদের হত্যা করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) পাবনা সদর উপজেলার মালিগাছা ইউনিয়নের রাখালগাছি খোদাইপুর গ্রামের মাঠ থেকে এবং ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী পেপার মিল এলাকা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঈশ্বরদী ও পাবনা সদর থানা পুলিশ।

নিহতদের মধ্যে সদর উপজেলার চর বাঙ্গাবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে অটোরিকশা চালক মানিক হোসেন (২৫)। আরেকজনের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

পাবনা সদর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক নিউজ পাবনা ডটকমকে জানান, আজ সকালে বাড়ি থেকে অটোরিকশা নিয়ে বের হওয়ার পর থেকে মানিকের আর কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।

“পরে স্থানীয় কৃষকরা দুপুরের দিকে মাঠে মৃতদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়।”

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে পাবনা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের নামে একটি মামলা করেছেন বলে জানান ওসি।

অপরদিকে পাকশী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ দেওয়ান মোহম্মদ আলমগীর হোসেন নিউজ পাবনা ডটকমকে জানান, পাকশী পেপার মিল এলাকা থেকে আজ সকালে অজ্ঞাত এক যুবকের হাত-পা বাঁধা গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি জানান, স্থানীয়রা রাস্তার পাশে ওই ব্যক্তির মৃতদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে মুখ এবং হাত-পা কাপড় দিয়ে বাঁধা অবস্থায় গুলিবিদ্ধ লাশটি উদ্ধার করে।

ঘটনাস্থলে দুটি গুলির খোসা পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি।

 

 

উল্লেখ্য এর মাত্র এক সপ্তা আগে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি পাবনায় ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে দুই খুনের ঘটনা ঘটেছিলো আমাদের সেই সংবাদটি নিউজ পাবনার পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো। 

পাবনায় গত ২৪ ঘন্টায় পৃথক ঘটনায় এক কিশোর ও এক গৃহবধূ  খুন হয়েছেন। আজ রোববার (১৯ ফেবুয়ারি) জেলার  আতাইকুলায় ও গত শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) আটঘরিয়ায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এর মধ্যে আতাইকুলা থানার কেষ্টপুর গ্রামে জহুরুল ইসলাম (১৫) নামের এক কিশোর দুবৃর্ত্তদের হাতে খুন হয়েছে।

রোববার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে একটি গমের খেত থেকে তার ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত কিশোর কেষ্টপুর গ্রামের নুরুল ইসলাম ওরফে বটো নামের এক পাটনির ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কিশোর জহুরুল ইসলাম তার বাবার সাথে কেষ্টপুর- গনেশপুর খেয়া ঘাটে পাটনির কাজসহ অন্যের বাড়িতে কাজ করত। শনিবার বিকেল থেকে জহুরুল নিখোঁজ ছিল। তার বাড়ির লোকজন বহু খোঁজাখুঁজি করে তার সন্ধান পাননি।

রোববার দুপুরে কেষ্টপুর গ্রামের কয়েকজন কৃষক খেতে কাজ করতে গেলে একটি গমের খেতে ওই কিশোরের মৃতদেহ দেখতে পান। পরে খবর দেয়া হলে আতাইকুলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

আতাইকুলা থানার কেষ্টপুর গ্রামে গম ক্ষেতে পরে থাকা জহুরুল ইসলাম এর গলাকাটা লাশ

আাতইকুলা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক নিউজ পাবনা ডটকমকে  জানান, নিহতের ঘাড়ে ধারাল অস্ত্রের কোপ রয়েছে।

খুনের কারণ এখনও জানা যায়নি। তবে পারিবারিক শত্রুতার কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে বলে প্রথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠান হয়েছে বলে ওসি জানান।

বিকেল ৫ টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়নি।

অপরদিকে, আটঘরিয়া উপজেলার একদন্ত পশ্চিমপাড়া গ্রামে আঁখি খাতুন (২৫) নামের এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে।

চাহিদামত যৌতুক না পেয়ে রোববার সকালে পাষণ্ড স্বামী জায়দুল তার স্ত্রীকে হত্যা করেন।

আঁখি বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানার আব্দুল হালিম শেখের মেয়ে।

নিহত গৃহবধূ আঁখির ভাই আব্দুল মালেক জানান, তিনমাস আগে জায়দুলের সঙ্গে তার বোনের বিয়ে হয়। এরপর থেকেই জায়দুল একটি মোটরসাইকেল ও ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে আঁখিকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিল।

শনিবার সকালে এ বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে আবার কথা কাটাকাটি শুরু হলে জায়দুল বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে আঁখিকে হত্যা করে বলে দাবি মালেকের।
আটঘরিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফারুক হোসেন নিউজ পাবনা ডটকমকে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আঁখির মরদেহ উদ্ধার করেছে।

তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আঁখির মা রুনি খাতুন রোববার দুপুরে বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলেও ওসি জানান।

ওসি আরো জানান,  ঘটনার পর জায়দুল ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছেন।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!