শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনায় ২ খুনের ঘটনায় পৃথক পৃথক মামলা দায়ের

image_pdfimage_print

বার্তাকক্ষ : পাবনার সদর উপজেলা ও সুজানগর উপজেলায় পৃথক ঘটনায় গত দুদিনে এক চা দোকানি ও এক গৃহবধূ খুন হয়েছেন। এ ঘটনায় পৃথক পৃথক মামলাও হয়েছে।

পাবনা সদর থানা-পুলিশ ও এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মুঠোফোনে বন্ধুত্বের সূত্র ধরে সদর উপজেলার আতাইকুলা ইউনিয়নের দুবলিয়া গ্রামের এক যুবক শনিবার (০৮ জুলাই) বিকেলে সদর উপজেলার হিমাইতপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে তাঁর নারী বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে আসেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় যুবকেরা ছেলেটিকে আটকে রেখে সালিস বৈঠক ডাকেন। খবর পেয়ে ছেলেটির স্বজনেরা ওই গ্রামে আসেন।

এ সময় চা দোকানি ও ওই নারীর প্রতিবেশী এনামুল হক (৪৫) ছেলেটিকে ছেড়ে দেন। এতে গ্রামের যুবকেরা ক্ষুব্ধ হয়ে রাত ১০টার দিকে এনামুলকে ডেকে অপমান করেন।

একপর্যায়ে ওই যুবকদের সঙ্গে এনামুলের কথা-কাটাকাটি ও ধস্তাধস্তি হয়। এ সময় যুবকেরা তাঁকে দা দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এনামুল মারা যান।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রাজ্জাক বলেন, প্রচুর রক্তক্ষরণে এনামুল মারা গেছেন। এ ঘটনায় এনামুলের স্ত্রী শিল্পী খাতুন ১৩ জনকে আসামি করে পাবনা সদর থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

অপরদিকে সুজানগর থানা-পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সুজানগরের মানিকহাট ইউনিয়নের ভিটবিলা গ্রামের মজিবর রহমানের স্ত্রী পিয়ারা খাতুনের (৩৮) একটি স্বর্ণের কানের দুল কয়েক দিন আগে হারিয়ে যায়।

অনেক খোঁজাখুঁজি করে তিনি দুলটি পাননি। একপর্যায়ে পিয়ারা খাতুনের দেবর রুবেল হোসেনের কাছে গিয়ে দুল নিয়েছেন কি না জানতে চান পিয়ারা। এতে রুবেল ক্ষুব্ধ হন। বিষয়টি নিয়ে তাঁদের মধ্যে ঝগড়া বাধে।

গতকাল রোববার (০৯ জুলাই) সকাল নয়টার দিকে ঝগড়ার একপর্যায়ে রুবেল বঁটি দিয়ে পিয়ারাকে কুপিয়ে পালিয়ে যান। প্রতিবেশী ও স্বজনেরা তাঁকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

সুজানগর থানার ওসি ওবায়দুল হক বলেন, ঘটনার পর থেকে রুবেল পলাতক রয়েছেন।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!