সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০২:২৮ পূর্বাহ্ন

পাবনা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সড়কের বেহাল দশা

পাবনা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সড়কের বেহাল দশা

পাবনা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সড়কের বেহাল দশা

পাবনা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সড়কের বেহাল

বার্তাকক্ষ:  পিচঢালাই উঠে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত। তাতে বৃষ্টির পানি জমে কাদায় একাকার। মাঝেমধ্যে ইট ফেলে কোনোক্রমে যাতায়াত করে লোকজন। যানবাহন চলে হেলেদুলে।

এ অবস্থা পাবনা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ‘মেরিল’ সড়কের। দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

চরম ভোগান্তি হচ্ছে লক্ষাধিক মানুষের।
এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মেরিল সড়ক পৌর এলাকার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোর একটি।

এই সড়কের পাশে রয়েছে দেশের বৃহৎ শিল্পপ্রতিষ্ঠান স্কয়ার গ্রুপের মেরিল টয়লেট্রিজ এবং স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজের দুটি কারখানা।

জেলার একমাত্র শ্মশানে যেতে এই সড়কটি ব্যবহার করতে হয়। তা ছাড়া পৌর এলাকার শ্মশান পাড়া, ফরেস্ট পাড়া, সর্দার পাড়া, খাঁ পাড়া, ঝোড় পাড়া, ফকিরপুর ও মালঞ্চি ইউনিয়নের ভুরভুরা মালঞ্চিসহ ১০টি মহল্লার লক্ষাধিক মানুষের শহরে যাতায়াতের একমাত্র সড়ক এটি।

এরপরও সড়কটির প্রতি নজর নেই পৌর কর্তৃপক্ষের। প্রায় ১০ বছরেও এই সড়কে সংস্কারকাজ দেখেননি এলাকাবাসী।

সরেজমিনে দেখা যায়, জেলা শহর থেকে হাসপাতাল সড়ক হয়ে শহরের বাইপাস সড়ক পার হলেই মেরিল সড়ক। শুরুতেই সড়কটি ভেদ করে চলে গেছে নির্মাণাধীন একটি রেলপথ।

এরপর বাঁ দিকে স্কয়ারের কারখানা, ডান দিকে বন বিভাগের কার্যালয়। মাঝখানে যে সড়ক আছে, তা এখন আর বোঝাই যায় না। সড়কের কোথাও পিচঢালাইয়ের অস্তিত্ব বোঝার উপায় নেই।

কেন্দ্রীয় শ্মশান মোড় পর্যন্ত আধা কিলোমিটার অংশে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। তাতে বৃষ্টির পানি জমে আছে। কোথাও কোথাও ব্যক্তিগত উদ্যোগে ইট, খোয়া ও বালু ফেলা হয়েছে। এর ভেতর দিয়েই হেলেদুলে ধীরগতিতে চলছে ট্রাক, অটোরিকশা, রিকশা, বাইসাইকেলসহ বিভিন্ন যান।

সড়কের পাশের মুদি ব্যবসায়ী মিলন হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন মেরামত না করায় সড়কটির এ অবস্থা হয়েছে। তা ছাড়া নির্মাণাধীন রেলপথের কাজের জন্য এখন মাটিভর্তি বহু ট্রাক চলাচল করছে।

এতে অবস্থা আরও বেহাল হয়েছে।
উত্তর ফুলবাড়িয়া মহল্লার পাভেল হোসেন বলেন, পৌরসভার স্থানীয় ৯ নম্বর ওয়ার্ডের অধিকাংশ সড়কই ভাঙাচোরা। কোনো এলাকাতেই পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থা নেই।

ফলে পানি জমে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
সর্দার পাড়া মহল্লার নার্গিস আক্তার বলেন, ‘এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন ছেলেকে নিয়ে স্কুলে যাই। কিন্তু বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় সড়কটির কথা মনে পড়লেই কান্না পায়। কষ্টের কারণে মাঝেমধ্যে ছেলেও স্কুলে যেতে চায় না।’

৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মো. সাইদুর রহমান বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই এই ওয়ার্ড অবহেলিত। মেরিল সড়কটি আরও অবহেলিত। এলাকাবাসী বহুবার পৌর কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছে।

কিন্তু সড়কটি মেরামতের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।
জানতে চাইলে ওই ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর আয়ুব আলী সরদার বলেন, ‘সড়কের বেহাল অবস্থার বিষয়টি আমি পৌরসভাকে জানিয়েছি। পৌর কর্তৃপক্ষ উদ্যোগ নিলেই কাজ শুরু হবে।’

পাবনা পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী তবিবুর রহমান বলেন, ‘আমরা সড়কটি মেরামতের জন্য একটি প্রকল্প তৈরি করেছি। সেটি এখনো অনুমোদিত হয়নি। অনুমোদন সাপেক্ষে অর্থ প্রাপ্তির সঙ্গে সঙ্গে মেরামতের কাজ শুরু হবে।’

0
1
fb-share-icon1


শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের প্রিন্স অফ পাবনা

Posted by News Pabna on Thursday, February 18, 2021

© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!