মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষের ঘটনা তদন্তে কমিটি

পাবিপ্রবির সংঘর্ষের ঘটনা তদন্তে কমিটি

image_pdfimage_print

বার্তাসংস্থা পিপ, পাবনা: পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক লাঞ্ছিতের জের ধরে ছাত্র, শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ারুল ইসলামকে প্রধান করে এই পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটিকে আগামী ৮ নভেম্বরের মধ্যে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য বলা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন সাইফুল ইসলাম, আইসিটি পরিচালক মো. আনোয়ার হোসেন, সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) ফারুক হোসেন চৌধুরী এবং ডেপুটি রেজিস্ট্রার বিজন কুমার ব্রহ্ম।

গত শুক্র ও শনিবারের সংঘর্ষের পর আজ ক্লাসে ফিরেছেন ছাত্র-শিক্ষকরা। কাজে যোগ দিয়েছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরে এসেছে স্বাভাবিক পরিস্থিতি।

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) ফারুক হোসেন চৌধুরী বলেন, তদন্ত কমিটি এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিস্তারিত অনুসন্ধান করে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে কলা ও সামাজিক অনুষদের ডিন ও বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এম আবদুল আলীমের সঙ্গে ফটকের নিরাপত্তাকর্মীদের বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে নিরাপত্তাকর্মীরা সংঘবদ্ধ হয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় ক্যাম্পাস চত্বরে ড. আলীমকে মারপিট করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থীরা শিক্ষককে মারপিট ও লাঞ্ছিতের খবর জানতে পেরে পরদিন শনিবার বেলা ১১টার দিকে ক্যাম্পাসের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে প্রতিবাদ সভা করেন। এ সময় কয়েকজন শিক্ষকও ছাত্রদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে সেখানে অবস্থান নেন।

এ খবর পেয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা লাঠিসোটা নিয়ে অবস্থানকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালান। এ সময় ছাত্র-শিক্ষকরা তাঁদের প্রতিহত করতে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়।

ভাঙচুর করা হয় অন্তত ৩০টি মোটরসাইকেল ও প্রশাসনিক ভবনের জানালার কাচ। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

 


পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

Posted by News Pabna on Saturday, October 10, 2020

লালন শাহ সেতু

লালন শাহ সেতু

লালন শাহ সেতু

Posted by News Pabna on Tuesday, October 6, 2020

© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!