বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৫:২৮ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবনা সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে শিক্ষক লাঞ্ছিত

image_pdfimage_print

LOGO-Borkhasto-newspabnaশহর প্রতিনিধি: পাবনা সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে তুচ্ছ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা সন্তান এক শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার পর আবার শরীয়তপুরে শাস্তিমূলক বদলি করার অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় পাবনায় শিক্ষক ও মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার বিদ্যালয়ের ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মনিরুজ্জামানকে প্রধান শিক্ষক জায়েদুর রহমান ও অপর শিক্ষক তায়জুল ইসলাম প্রধান শিক্ষকের কক্ষে ডেকে নিয়ে অহেতুক নানা ধরনের উসকানিমূলক কথাবার্তা ও কটূক্তি করতে থাকেন। একপর্যায়ে মনিরুজ্জামানকে রাজাকারের বাচ্চা বলে গালি দিলে তিনি উত্তেজিত হয়ে ওঠেন। এ সময় প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামানকে পাগল আখ্যায়িত করে তাঁকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তির কথা বলে বিদ্যালয় থেকে বের করে দেন।

এ ঘটনা জানতে পেরে পাবনা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনার পরের দিনই শিক্ষক মনিরুজ্জামানকে শরীয়তপুরে শাস্তিমূলক বদলি করা হয়। এ বিষয় নিয়ে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গত বুধবার তদন্ত করতে স্কুলে যান। তবে উভয় পক্ষ উপস্থিত না থাকায় তদন্ত করা যায়নি।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নাসির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে পাবনা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার আবদুল বাতেন বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। সরকার যেখানে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ মর্যাদা দিচ্ছে, সেখানে প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী এ ধরনের ধৃষ্টতা দেখানোর সাহস কোথায় পান?

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক জায়েদুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘ঘটনাটি পুরো মিথ্যে। বরং ওই শিক্ষকই আমাকে লাঞ্ছিত করেছে। এ ব্যাপারে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।’

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!