শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:১৩ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

পাবিপ্রবিতে ভর্তি পরীক্ষা- পাবনাইয়া মেহমানদারীতে মুগ্ধ পরীক্ষার্থীরা

image_pdfimage_print

রনি ইমরানঃ শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) শান্তিপূর্ন ভাবে অনুষ্ঠিত হয় পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা। এবার ২৫ হাজার শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

দু’দফায় সকাল ১০টা থেকে ১২টা এবং বিকাল ৩.৩০টা থেকে ৫টা পর্যন্ত এ ও বি ইউনিটের পরিক্ষা পাবনা শহরের ১৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়।

এ বছর ভর্তিচ্ছু ও তাদের অভিভাবকদের বিনা খরচে থাকা-খাওয়া ব্যাবস্থা করা সহ পরীক্ষার কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করেছিলো জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি।

এ উদ্যোগ দেশের সর্বস্তরের মানুষের ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছে।

পাবনার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ পাবনা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। দেশবাসীর কাছে পাবনা জেলা ভাবমূর্তি আরো বেড়ে গেলো।

জেলা যুবলীগ পরীক্ষার্থীদের রাত জেগে সেচ্ছাসেবীর কাজ করেছে এতে সন্তুষ্ট আগত ছাত্রছাত্রী ও তাদের অভিভাবকবৃন্দ।

প্রতিবছর ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা চরম বিপাকে পড়েন আবাসন নিয়ে। ছোট এই শহরে হোটেল ও সরকারি-বেসরকারি রেস্ট হাউজে আগতদের স্থান সংকুলান হয় না।

এছাড়া মসজিদ বা অফিসের বারান্দায় রাত কাটান পরিক্ষাথীরা এই সুযোগ বুঝে বাড়তি ভাড়া আদায় করে হোটেল মালিকরা। ভর্তি পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দূর্ভোগ লাঘবে তাই এবার পাবনাবাসী এই উদ্যোগ নিয়েছিলো।

এ বিষয়ে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন জানায়, জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ ও পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলামের আহবানে প্রথমবারের মতো পাবনা জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে জেলা পুলিশ, জেলা পরিষদ, পাবনা সদর উপজেলা পরিষদ, পাবনা চেম্বার অব কমার্স ও বিভিন্ন দপ্তরের সহযোগিতায় পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা ২০১৯ উপলক্ষে আগত পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আবাসন ও খাবার ব্যবস্থা করা হয়েছিলো।

পাবনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন বলেন, ১৫ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে আগত সকলের জন্য থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করতে জেলা প্রশাসন ৪১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান প্রস্তুত করেছিলো।

জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ সমস্ত বিষয়টি তদারকি করছেন।

তিনি জানান, আগতদের অধিকাংশেরই পাবনা শহর অচেনা। সহজে নির্ধারিত পরীক্ষা কেন্দ্রের কাছাকাছি আবাসনে সহজে পৌঁছাতে সাহায্য করার জন্য পাবনা শহরে প্রবেশের বিভিন্ন পয়েন্টে ৬টি বুথ খোলা ছিলো।

বাস টার্মিনাল, গাছপাড়া, অনন্ত বাজার মোড়, ট্রাফিক মোড় ও সোনালী ব্যাংক প্রধান শাখার সামনে স্থাপিত বুথে এবং বিভিন্ন আবাসন কেন্দ্রে সেবা নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসনকে সহযোগিতা করেছে রোভার, স্কাউটসসহ বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

এগিয়ে এসেছিলো পরীক্ষার আগের দিন অর্থাৎ ১৪ নভেম্বর দুপুর ২টা থেকে পরীক্ষার দিন ১৫ নভেম্বর সকাল ১০টা পর্যন্ত সকল আবাসন স্থল ও বুথ সমূহ খোলা ছিলো এতে পরীক্ষার্থীদের দূর্ভোগ পোহাতে হয়নি।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!