বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:৪০ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

ফরিদপুরে নিখোঁজ ১০ জনের সন্ধান চেয়ে আ.লীগের বিক্ষোভ মিছিল

নিখোঁজদের সন্ধান চেয়ে বিক্ষোভ

image_pdfimage_print
নিখোঁজদের সন্ধান চেয়ে বিক্ষোভ

নিখোঁজদের সন্ধান চেয়ে বিক্ষোভ

ফরিদপুর (পাবনা) প্রতিনিধি: মঙ্গলবার (২৪ মে) পাবনার ফরিদপুর উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে নিখোঁজ থাকা ১০ জনের পরিবার ও উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো: খলিলুর রহমান সরকার, সম্পাদক আলী আশরাফুল কবির ও পৌর মেয়র খ.ম. কামরুজ্জামান মাজেদের নেতৃত্বে মহিলা ও পুরুষের এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল পৌর এলাকার বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়াজিউদ্দিন খান পৌর মুক্তমঞ্চে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো: খলিলুর রহমান সরকার, সম্পাদক আলী আশরাফুল কবির, পৌর মেয়র খ.ম. কামরুজ্জামান মাজেদ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক গোলাম হোসেন গোলাপ, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুজ্জামান রঞ্জু, আওয়ামীলীগ নেতা মো: আব্দুল হালিম, পৌর কাউন্সিলর জয়নুল আবেদীন ও নিখোঁজদের আত্মীয়-স্বাজন।

বক্তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অবিলম্বে নিখোঁজদের তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানান। না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষনা দেন।

উল্লেখ্য, আইনশৃংখলা বাহিনীর পরিচয় দিয়ে গত ১১ মে ভোর প্রায় ৪ টায় উপজেলার খাগরবাড়ীয়া গ্রামের সাবেক ইউ.পি সদস্য করিম সর্দারের তিন ছেলে এরশাদ সরদার, টিক্কা সরদার ও সাদ্দাম সরদার, প্রায় একই সময়ে থানাপাড়া গ্রামের জুলু প্রামানিকের ছেলে রনি প্রামানিককে তার বাসা, সাভার গ্রামের মোফাজ্জল মাস্টারের ছেলে দুলাল প্রামানিককে উল্লাপাড়া, শফিউর রহমানের ছেলে সাইদ হোসেনকে গাজিপুরের একটি বাসা, ২২ মে মৃত আহম্মদ আলীর ছেলে রমজান হোসেনকে চট্রগ্রামের রাঙ্গুনিয়া এবং ২১ এপ্রিল সামাদ আলীর ছেলে দুলাল হোসেনকে ঢাকার হাজারীবাগ, সাইদুর রহমানের ছেলে সুরুজ হোসেন ও মুক্তার আলীর ছেলে লিটন হোসেনকে ঢাকার কামরাঙ্গীর চর থেকে তুলে নিয়ে যায়।

এ খবর লেখা পর্যন্ত তাদের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। রমজান হোসেন, দুলাল প্রামানিক ও সুরুজ হোসেন প্রায় ৪ মাস আগে যুবদল নেতা লিটন হত্যা মামলার আসামী।

নিখোঁজদের না পেয়ে ২৪ মে করিম সরদার বাদী হয়ে পাবনার ১নং আমলী আদালতে উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি জহুরুল ইসলাম বকুল, নিহত লিটনের ভাই সাইফুল ইসলাম ও ইউপি সদস্য বাবুল হোসেন সহ ১৪ জনকে আসামী করে ১০/২০১৬ নং এবং নিখোঁজ রনির স্ত্রী লাকী খাতুন ফরিদপুর থানায় একই তারিখে ১১/২০১৬ নং মামলা দায়ের করেছেন।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!