বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন

ফাইনালে রাজশাহী

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে ক্যারিবীয় তারকা আন্দ্রে রাসেলের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে দুই উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে রাজশাহী রয়্যালস।
২২ বলে ৫৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেললেন আন্দ্রে রাসেল। এর মধ্যে ছক্কা মেরেছেন তিনি ৭টি। বাউন্ডারি ২টি। অর্থ্যাৎ ৫০ রানই এসেছে তার বাউন্ডারি আর ছক্কা থেকে। ২০তম ওভারের তৃতীয় বলকে ছক্কা পরিণত করেই রাজশাহীকে ফাইনালে তুলে দেন আন্দ্রে রাসেল।

বুধবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৬৪ রান তোলে চট্টগ্রাম।

চট্টগ্রামের দেয়া ১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৪ রানের মধ্যে দুই ওপেনার আফিফ হোসেন (২) ও লিটন দাসকে (৬) হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় রাজশাহী। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি অলোক কাপালি (৯)।

৩৪ রানে তিন উইকেট হারানো রাজশাহীর ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন ইরফান শুক্কুর ও শোয়েব মালিক। দলীয় ৮০ রানরে মাথায় মালিককে ফিরিয়ে চট্টগ্রামকে চালকের আসনে বসান জিয়াউর রহমান। এর পরপরই বিদায় নেন দারুণ খেলতে থাকা ইরফানও। ৪২ বলে ৪৫ রান করেন তিনি।

এরপর উইকেটে আসেন আন্দ্রে রাসেল। মোহাম্মদ নেওয়াজকে নিয়ে শুরু করেন তাণ্ডব। কিন্তু বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি সেটিও। ৫ বলে ১৪ করে নেওয়াজকে বিদায় নিতে বাধ্য করেন এমরিত। একই ওভারের ৫ম বলে ফরহাদ রেজাকে ফিরিয়ে রাজশাহীর শিবিরে চাপ এনে দেন এই বোলার। কিন্তু উইকেট আগলে ধরে একাই লড়াই চালিয়ে যান আন্দ্রে রাসেল। তুলোধুনা করতে থাকেন চট্টলার বোলারদের। ছিনিয়ে নিয়ে আসেন শ্বাসরুদ্ধকর এক জয়।

এর আগে, টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মন্থর শুরুর পর ২২ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় চট্টগ্রাম। ১২ বলে ৬ রান করে ফিরে যান জিয়াউর রহমান। দ্রুতই ফিরে যান ইমরুল কায়েসও (৫ রান)

এরপরই রাজশাহীর বোলারদের ওপর বুলডোজার চালান ক্রিস গেইল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ২৫ বলের তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৫২ রান তোলেন তারা। ২৪ বলে ৬০ রান করে আফিফের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান গেইল। ৬টি চারের পাশাপাশি ৫টি ছক্কা হাঁকান তিনি।

দলীয় ১১৩ রানের মাথায় ৩৩ রান করে ফিরে যান রিয়াদ। ১৮ বলের ইনিংসে ছিলো সমান তিনটি করে চার ও ছয়ের মার। এরপরই আসা যাওয়ার মিছিলে যোগ দেয় চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যানরা। শেষের দিকে গুনারত্নের ২৫ বলে ৩১ রানের ওপর ভর করে ১৬৪ রান তুলতে পারে চট্টলার দলটি।

৪ ওভারে ১টি মেইডেনসহ মাত্র ১৩ রান খরচায় ২ উইকেট নেন মোহাম্মদ নওয়াজ। এছাড়া মোহাম্মদ ইরফান ৪ ওভারে ১৬ রান দিয়ে নেন দুই উইকেট।

এই জয়ে ফাইনালে খুলনা টাইগার্সের সঙ্গী হলো রাজশাহী রয়্যালস। শুক্রবার শিরোপার লড়াইয়ে মাঠে নামবে দু’দল।


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!