মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

বগুড়ায় এইচএসসি পরীক্ষার্থী খুন

image_pdfimage_print

বগুড়ায় নাজিউর রহমান নাহিদ (১৯) নামে এক এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছে। শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে শাজাহানপুর উপজেলার খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের ঘাসিড়া-বিরুলিয়া সড়কে ওই হত্যাকাণ্ড ঘটে। নাহিদ নারিল্যা গ্রামের মতিউর রহমান মাস্টারের ছেলে। সে বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ থেকে এবার এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিল।

পুলিশ ওই হত্যাকাণ্ডের কারণ তাৎক্ষণিকভাব জানাতে পারেনি। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রবিউল ইসলাম নামে এক যুবককে আটক করেছে। সে নাহিদের এক সময়ের বন্ধু ছিল। নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী খুন হওয়ার কথা জানার পর বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের শিক্ষকরা বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ছুটে যান।

শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দিন জানান, নাহিদ উপজেলার ডেমাজানি স্কুল কেন্দ্রে পরীক্ষা দিয়ে দুপুর ১টার কিছু পরে বের হয়। সহপাঠীদের সঙ্গে কিছুটা সময় গল্প করে সে জহিরুল ইসলাম তোহা নামে তার এক সহপাঠীকে নিয়ে মোটরসাইকেলে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়।

জহিরুল ইসলাম তোহা জানায়, শনিবার তাদের রসায়ন দ্বিতীয়পত্র পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষা শেষে তারা মোটরসাইকেল নিয়ে ঘাসিড়া-বিরুলিয়া সড়ক ধরে বাড়ি ফিরছিল। তাদের মোটরসাইকেলটি ইউনিব্রাদার পোলট্রি খামারের সামনে পৌঁছলে অপরিচিত একজন তাদের পথরোধ করে। এরপর ওই ব্যক্তি তাদের দু’জনের কেমন পরীক্ষা হয়েছে জানতে চায়। তার সঙ্গে কথপোকথনের সময় অজ্ঞাত আরেক ব্যক্তি এসে নাহিদের তলপেটে ছুরিকঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে তাদের আরেক বন্ধুর সহায়তায় নাহিদকে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শজিমেক হাসপাতাল সংলগ্ন ছিলিমপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর রফিকুল ইসলাম জানান, হাসপাতালে আনার পরপরই নাহিদ মারা যায়। বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের উপাধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক বলেন, নাহিদ আমাদের ছাত্র ছিল। তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে শুনেছি। এই খবর শোনার পর থেকে আমরা ব্যথিত।

বগুড়ার শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দিন জানান, নাহিদের নাভির ঠিক নিচে ছুরিকাঘাত করা হয়। হত্যাকাণ্ডের কোনো ক্লু এখনও পাওয়া যায়নি। তবে চেষ্টা চলছে। ধারণা করা হচ্ছে পূর্বশত্রুতার জের ধরে বন্ধুরাই ওই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে। রবিউল ইসলাম নামে এক যুবককে আটকের কথা স্বীকার করে ওসি আজিম উদ্দিন বলেন, নাহিদের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, ওই যুবক কয়েকদিন আগে মোবাইল ফোনে নাহিদকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল। এ বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে সালিশও হয়েছিল। সে কারণেই রবিউলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।


পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

Posted by News Pabna on Saturday, October 10, 2020

লালন শাহ সেতু

লালন শাহ সেতু

লালন শাহ সেতু

Posted by News Pabna on Tuesday, October 6, 2020

© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!