বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ৪৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিক পালিত

12936709_1770430229843432_5777492056340630697_nসম্পদ সম্পত্তিতে সমান অধিকার-নারীর ক্ষমতায়ন ও স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের পূর্বশর্ত এই আহ্বানে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ পাবনা জেলা শাখার উদ্যোগে এবং সংগঠন উপ-পরিষদের আয়োজনে সোমবার বিকালে শহরের পিসিসিএস বাজার হলরুমে ৪৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পরিষদের সহ-সভাপতি নুরুন নাহার এর সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক এড: কামরুন নাহার জলি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক রেখা রানী বালো।

বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, পাবনা প্রেস ক্লাবের সম্পাদক, আখিঁনূর ইসলাম রেমন, কৃষিবিদ, জাফর সাদিক, সূচনা সমাজ কল্যান সংস্থার নির্বাহী পরিচালক, পূর্নিমা ইসলাম।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ তৃনমূল নারীদের আস্থার একটি জায়গা এই সংগঠন তৃনমূল নারীদের নির্যাতন প্রতিরোধসহ নারীর সার্বিক উন্নয়নে আরো অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে।

মহিলা পরিষদের প্রথমেই ম আর ম তে মা, মাটি, মানুষ। বক্তাগন আরো বলেন মুসলিম আইনে বলা আছে পিতা-মাতার সম্পত্তিবর তিন ভাগের দুই ভাগ পাবে ছেলে আর এক ভাগ পাবে নারী, এটা কি ধরনের নারীদের প্রতি বৈষম্যতা এই বৈষম্যতা থেকে আমাদের বের হয়ে আসতে হবে। সমাজে আজ ইভটিজিং, ধর্ষন, খুন,অপহরন ও বাল্য বিবাহের হার বেড়েই চলেছে। বাবা মারা সন্তানের বয়স কমিয়ে বিয়ে দেয় যার ফলে ঝরে যায় সন্তানের ভবিষ্যত। তাই আমাদের এখনই দেশের অর্থনৈতিক স্বার্থে নারীদের এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

সমাজ থেকে সকল কুসংস্কারকে দূর করে দেশ ও দশের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে হবে। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের আজ ৪৬ বছর পূর্ণ হয়েছে, আর এ সূদীর্ঘ যাত্রা পথে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের অর্জন অনেক, আমরা লক্ষ্য করলে দেখতে পাই যে আমাদের দেশের প্রধান মন্ত্রী নারী তাছাড়া নারীরা আজ সকল কাজে অংশ গ্রহন করছেন ।

৪৬ বছরের পথ পরিক্রমায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ যেমন যুদ্ধে অংশগ্রহন করেছেন তেমন বেগম সুফিয়া কামালের প্রতিষ্ঠিত এই সংগঠন নারীদের মনে আস্থার জায়গা হিসেবে ৪৬ বছর পার করেছে। এছাড়াও সকল আলোচক বৃন্দ পাবনা এ্যাডওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ইতিহাস বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্রী ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্রী সোহাগী জাহান তনুর ধর্ষন ও খুনের তিব্র নিন্দা জানান।

উক্ত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পাবনা,সিটি কলেজের সহকারী অধ্যাপক, শামসুন্নাহার বর্ণা ও সাবেরা সুলতানা, পাবনা সেলিম নাজির উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, হাসিনা আক্তার রোজী, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ পাবনা জেলা শাখার শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক, বদরুন নাহার ও কার্যকরী সদস্য রওশন আক্তার মিন্টু।
অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক, কামরুন নাহার জোসনা এবং সমন্বয় করেন প্রোগ্রাম এক্রিকিউটিভ আলমেহেদি ছান্দাতুল কিবরিয়া। অনুষ্ঠানে জেলা থানা পাড়া এবং বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্য,সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ ১২২ জন অংশ গ্রহন করেন।