মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৮:৫৩ অপরাহ্ন

বাউল শাহ আবদুল করিমের ১০৫তম জন্মদিন

‘বসন্ত বাতাসে’, ‘বন্দে মায়া লাগাইছে’, ‘আমি কূলহারা কলঙ্কিনী’, ‘গাড়ি চলে না’, ‘আগে কী সুন্দর দিন কাটাইতাম’সহ অসংখ্য কালজয়ী গানের রচয়িতা বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিমের ১০৫তম জন্মদিন আজ।
১৯১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার উজানধল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

কিংবদন্তি এ বাউল শিল্পীর গানে উঠে এসেছে ভাটির জল-হাওয়া-মাটির কথা, কালনী-তীরবর্তী জনজীবনের কথা, মানুষের চিরায়ত সুখ-দুঃখ, দারিদ্র্য, লোকাচারের কথা। বাউল ও আধ্যাত্মিক গানের পাশাপাশি ভাটিয়ালি গানেও দখল ছিল তার।

১৬শ’র বেশি গানের গীতিকার ও সুরকার শাহ আবদুল করিম। বাংলা একাডেমির উদ্যোগে তার ১০টি গান ইংরেজিতে অনূদিত হয়েছে।

শাহ আবদুল করিমের লেখা ছয়টি গানের বই রয়েছে। এগুলো হলো- আফতাব সঙ্গীত, গণসঙ্গীত, ধলমেলা, কালনীর ঢেউ, ভাটির চিঠি ও কালনীর কূলে।

একুশে পদকপ্রাপ্ত কিংবদন্তি এ লোকশিল্পীর জন্মদিন উপলক্ষে প্রতি বছরের মতো এবারো তার উজানধলের বাড়িতে রয়েছে দুই দিনব্যাপী লোক উৎসব।

সঙ্গীতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে একুশে পদক ছাড়াও তিনি পেয়েছেন সিটিসেল-চ্যানেল আই সম্মাননা, সিলেট সিটি করপোরেশন নাগরিক সংবর্ধনা, বাংলাদেশ জাতিসংঘ সমিতি, অভিমত, শিল্পকলা একাডেমি, খান বাহাদুর এহিয়া সম্মাননাসহ বহু পদক।

২০০৯ সালের ১২ সেপ্টেম্বর সিলেটে মারা যান বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিম।

শাহ আবদুল করিম স্মৃতি পরিষদের সভাপতি আপেল মাহমুদ বাউল বলেন, শাহ আবদুল করিম গানে আর সুরে আমাদের মাঝে থাকবেন অনন্তকাল। সবার প্রতি অনুরোধ তার গান কেউ বিকৃতভাবে গাইবেন না।


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!