বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০১:২৩ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

বিচারপতি হলেন পাবনার কৃতী সন্তান খোন্দকার দিলীরুজ্জামান

image_pdfimage_print

বার্তা সংস্থা পিপ, পাবনা : পাবনা জেলার প্রথম বিচারপতি হিসেবে শপথ নিলেন চাটমোহরের কৃতি সন্তান খোন্দকার দিলীরুজ্জামান।

আজ শনিবার (৩০ মে) বিকেল ৩টায় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে খোন্দকার দিলীরুজ্জামানসহ নিয়োগপ্রাপ্ত ১৮ জন বিচারপতিকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

গত ২৯ মে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, আইন ও বিচার বিভাগ, বিচার শাখা-৪ এর সচিব মো. গোলাম সারওয়ার ১০.০০.০০০০.১২৮.১১.০০১.১৮.১৭৯ নম্বর স্বারকে রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে বাংলাদেশ সংবিধানের ৯৫ অনুচ্ছেদে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে স্বাক্ষরিতপত্রে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওই আদেশে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট, হাইকোর্ট বিভাগের খোন্দকার দিলীরুজ্জামানসহ ১৮ জন অতিরিক্ত বিচারককে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট, হাইকোর্ট বিভাগের স্থায়ী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

২০১৮ সালের ৩০ মে ওই ১৮ জনকে অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।
পাবনা জেলার প্রথম বিচারপতি হিসেবে খোন্দকার দিলীরুজ্জামান নিয়োগ পাওয়ায় তার গ্রামের বাড়ী চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের ধরইল খোন্দকার বাড়ীসহ আনন্দে ভাসছে গোটা জেলা।

তবে করেনা ভাইরাসের (কোভিট-১৯) কারণে অনেকেই বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামান এর জন্য কোন অনুষ্ঠান করতে না পারলেও তার দীর্ঘায়ু ও সুস্থ্যতা কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য, ১৯৭৩ সালের ২৩ এপ্রিল চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের ধরইল গ্রামের সম্ভ্রান্ত খোন্দকার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন দিলীরুজ্জামান।

তিনি ধরইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শিক্ষা জীবন শুরু করেন। পরে পাবনা জেলার দ্বিতীয় প্রাচীণতম শিক্ষালয় চাটমোহর রাজা চন্দ্র নাথ ও বাবু শম্ভূনাথ (আরসিএন এন্ড বিএসএন) পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে (বর্তমানে চাটমোহর সরকারি আরসিএন এন্ড বিএসএন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়) সপ্তম শ্রেণী পর্যন্ত লেখাপড়া করে খুলনা সরকারি ল্যাবরেটরী স্কুল থেকে প্রথম বিভাগ নিয়ে এসএসসি পাশ করেন।

পরবর্তীতে দৌলতপুর কলেজ, খুলনা থেকে কৃতিত্বের সাথে এইচএসসি পাশ করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি অনার্স এবং এলএলএম সম্পন্ন করে ১৯৯৯ সালে ঢাকা জজ কোর্টে আইনজীবি হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন।

এলাকায় ভাল ক্রিকেটার হিসেবে সুখ্যাতি পাওয়া খোন্দকার দিলীরুজ্জামান ২০০১ সালে সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবি হিসেবে তালিকাভূক্ত হন।

২০০৭ সালে সহকারি এ্যাটর্নী জেনারেল এবং ২০১৩ সালে ডেপুটি এ্যাটর্নী জেনারেল হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। বিবাহিত জীবনে এক কন্যা সন্তানের জনক বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামান।

তার স্ত্রী ঢাকার একটি স্কুলে প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন এবং তার মেয়ে খোন্দকার শেহজাদ জামান ‘নুর মোহাম্মদ পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ’-এ ইংরেজী ভার্সনে ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে অধ্যায়নরত।

ধরইল গ্রামের খন্দকার বাড়ীর মরহুম খোন্দকার হাবিবুর রহমান ও মরহুমা নুরজাহান খোন্দকারের ৬ ছেলে ২ মেয়ের মধ্যে সর্ব কনিষ্ঠ খোন্দকার দিলীরুজ্জামান।

বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় তিনি তার জন্মভূমি চাটমোহর উপজেলা-জেলাবাসীসহ দেশবাসীর নিকট দোয়া ও আর্শিবাদ কামনা করেছেন।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!