বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৩১ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

বিদ্যুতের দাবীতে সাঁথিয়ায় মহাসড়ক অবরোধ

image_pdfimage_print

Sathia-620x298সাঁথিয়া প্রতিনিধি :  পাবনার পল্লীতে সীমাহীন লোডশেডিং এর প্রতিবাদ ও পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবীতে বুধবার (৪ মে) দুপুরে পাবনার বনগ্রামে স্কুল ও কলেজের প্রায় ৫ হাজার শিক্ষার্থী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে।

তারা এ সময় ঢাকা- পাবনা মহাসড়ক প্রায় এক ঘন্টা অবরোধ করে রাখে। এ কর্মসূচীতে শিক্ষার্থীদের সাথে তাদের অভিভাবক, ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের জনসাধারন যোগ দেয়। অবস্থার উন্নতি না হলে আগামীতে ব্যাপক কর্মসূচীর ঘোষণা আসে কর্মসূচী থেকে।

ওই দিন সকাল ১১টায় স্থানীয় কলেজ, উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা, অভিভাবক ব্যবসায়িরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর সীমাহীন লোড শেডিংয়ের প্রতিবাদে বনগ্রাম বাজার থেকে বহলবাড়িয়া নামক জায়গা পর্যন্ত ঢাকা- পাবনা মহাসড়কের দু’পাশে প্রায় ২কি.মি ব্যাপী বিশাল মানববন্ধন রচনা করে।

তারা বিভিন্ন ধরণের ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে রাস্তার দুপাশে অবস্থান নেয়। এক পর্যায়ে তারা রাস্তায় বসে পড়ে প্রায় ১ ঘন্টা ঢাকা- পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে রাস্তার দু’পাশে বহু যানবাহন আটকা পড়ে।

এ সময় এলাকার হাজার হাজার নারী পুরুষ তাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন। এলাকার জন প্রতিনিধিদের অনুরোধে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়। পরে তারা পর্যাপ্ত বিদ্যুতের সরবরাহের দাবিতে ও বৈষ্যম্যমূলক বন্টনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল বের করে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে ফিরে যায়।

মানবন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন মিয়াপুর হাজী জসীম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি মুনুছুর আলম পিন্চু, কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল লতিফ, অভিভাবক আব্দুল হামিদ মোল্লা, শিক্ষক আবু সাঈদ প্রমুখ।

মানবন্ধন কর্মসূচিতে যোগ দেয়া শিক্ষার্থীরা জানান, পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর মাধপুর সাব স্টেশনের মাধ্যমে যে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয় তাতে দিনে ১৮- ২০ ঘন্টা লোডশেডিং থাকে। এতে প্রচন্ড গরমে তাদের বাড়িতে ও স্কুলে পড়াশোনা বিঘ্নিত হচ্ছে। ব্যবসায়ীরা দাবী করেন ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুতের অভাবে প্রতিনিয়ত লোকসান গুণতে হচ্ছে। তারা জানান, শহর সাথে গ্রামের মধ্যে বিদ্যুৎ বন্টনে বৈষম্য করা হচ্ছে। তারা এ বিষয়টি অবিলম্বে বন্ধ করতে পবিস -২ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, লোডশেডিং একটি জাতীয় সমস্যা। চাহিদার তুলনায় আমাদের প্রাপ্তি অনেক কম। তিনি জানান, আগামী ৮ মে বিভিন্ন এলাকার বিদ্যুতের চাহিদা নির্ধারণে নতুন করে জরিপ করা হবে। তখন এ এলাকার চাহিদার বিষয়টি নির্ধারণ করা হবে। এ বিষয়ে ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট অবহিত করা হয়েছে।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!