মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

বিয়ের চাপ দেয়ায় কিশোরীকে খুন করে প্রেমিকের ৩ বন্ধু

বিয়ের চাপ দেয়ায় কিশোরীকে খুন করে প্রেমিকের ৩ বন্ধু

image_pdfimage_print

বার্তাকক্ষ : গত ১৮ জুলাই পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার বাঐখোলা থেকে উদ্ধার অজ্ঞাতনামা কিশোরীর লাশের পরিচয় পাওয়া গেছে।

তিনি বগুড়া জেলার গাবতলী উপজেলার তুকানপুকুর গ্রামের মৃত অমূল্য চন্দ্রের মেয়ে শেফালী ওরফে সীমা (১৮)। বিয়ের জন্য চাপ দেয়ায় তাকে প্রেমিক ও তার ৩ বন্ধু হত্যা করে।

হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে মেয়েটির কথিত প্রেমিক একরামুল হক সাগর (২২) বুধবার পাবনার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মহিদুর রহমানের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।

সাগর আটঘরিয়া উপজেলার খামারকোদালিয়া গ্রামের ইয়াসিন আলীর ছেলে।

এ ঘটনায় গ্রেফতার অন্য দুই আসামি হলেন পাবনা সদর উপজেলার হেমায়েতপুরের তায়জাল সর্দারের ছেলে সেলিম সর্দার (৩২)ও মিনহাজ প্রামাণিকের ছেলে জিয়ারুল (৩০)।

বুধবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।

আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিতে সাগর জানায়, সীমা পাবনার চাটমোহরে ভাড়া বাড়িতে থেকে ঝি এর কাজ করতো। এরই মধ্যে মাত্র ১০ দিনের পরিচয়ের সূত্র ধরে কুমিল্লার একটি ওয়ার্কশপে কর্মরত সাগরের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে ১৫ জুলাই সীমাকে নিয়ে কুমিল্লা যায় সাগর।

মালিক বাবু এটি ভাল চোখে না দেখলে সে সীমাকে আবার পাবনার চাটমোহরে পাঠানোর জন্য একটি গাড়িতে তুলে দেয়। কিন্ত মেয়েটি কিছুদূর গিয়ে গাড়ি থেকে নেমে আবার সাগরের ওয়ার্কশপে যায় এবং বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে।

উপায়ান্তর না পেয়ে সাগর মেয়েটিকে নিয়ে ১৭ জুলাই কমলাপুর রেলস্টেশনে আসে এবং চাটমোহরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। এরই মধ্যে সাগর তার বন্ধু সেলিম ও জিয়ারুলকে বিষয়টি জানিয়ে চাটমোহর স্টেশনে তাদের থাকতে বলে।

বিয়ের জন্য জোর করায় পরামর্শ মতো সাগর ও তার বন্ধুরা মেয়েটিকে নিয়ে করিমন ভাড়া করে গ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। পরে তারা আটঘরিয়া উপজেলার বাঐখোলা গ্রামের মোড়ে নিয়ে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে মেয়েটিকে হত্যা করে।

ঘটনার পর হতে আসামিরা স্থান পরিবর্তন করে আত্মগোপনের চেষ্টা করছিল।

পুলিশ সুপারের নির্দেশনামতে আটঘরিয়া থানা পুলিশ প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের অবস্থান শনাক্ত করে।

বুধবার পাবনা বাইপাস টার্মিনাল থেকে সাগরকে গ্রেফতার করে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক অন্য দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়।

আটঘরিয়া থানার ওসি আনোয়ারুল হক জানান, এর সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!