শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৮:১২ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

বেড়ার ঐতিহ্যবাহী মাঠায় শীতল পরশ

বেড়ার ঐতিহ্যবাহী মাঠায় শীতল পরশ

image_pdfimage_print

বার্তাকক্ষ : পাবনার বেড়া উপজেলায় মাঠা তৈরির ইতিহাস দীর্ঘদিনের। গরমকালে এখানকার লোকজনের এ পানীয় না হলে চলেই না। ইফতারিতেও অন্যতম অনুষঙ্গ এটি। মাঠা পানে শরীর শীতল হয়। তৃপ্তির পরশ পান রোজাদার।

মাঠা মূলত বিশেষ ধরনের ঘোল। দেশের অন্য এলাকার চেয়ে বেড়ার মাঠা কিছুটা আলাদা। এর স্বাদ ও রঙে পার্থক্য রয়েছে। ঘোল বা মাঠা তৈরি হয় গরুর দুধ থেকে। আর গরুর দুধ উৎপাদনে এ উপজেলার রয়েছে আলাদা সুনাম। স্থানীয় লোকজনের ধারণা, ভালো দুধের কারণেই এখানে ভালো মানের মাঠা তৈরি হয়। তবে মাঠা তৈরিতে কারিগরেরও রয়েছে বিশেষ ভূমিকা।

মাঠা তৈরিতে এ উপজেলার বেশ কয়েকজনের সুনাম ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে বিশু ঘোষ অন্যতম। ৪০ বছরের বেশি সময় ধরে তিনি মাঠা তৈরি ও বিক্রি করছেন। বিশু ঘোষের আদি বাড়ি বেড়া পৌর এলাকার শম্ভুপুর মহল্লায়।

তবে বছর দুয়েক ধরে তিনি পাশের শাহজাদপুর উপজেলার জামিরতা গ্রামে বাস করছেন। সেখানেই তিনি মাঠা তৈরি করে বেড়া বাজারে নিয়ে আসেন বিক্রির জন্য।

রমজান মাসে তাঁর মাঠার চাহিদা আরও বাড়ে। সাধারণত বেলা একটার দিকে তিনি ২০-২৫ মণ মাঠা নিয়ে বাজারে আসেন। সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয় বেচাকেনা। প্রতি লিটার মাঠার দাম ৪০ টাকা। ক্রেতারা সারি ধরে মাঠা কেনা শুরু করেন।

এক থেকে দেড় ঘণ্টার মধ্যেই বেচাকেনা শেষ। যাঁরা একটু দেরিতে আসেন, তাঁরা সেদিন বিশু ঘোষের মাঠা পান না। এ বাজারে আরও অনেকে মাঠা বিক্রি করেন। এ উপজেলায় মাঠা তৈরির কারিগর রয়েছেন ৮-১০ জন।

বেড়া বাজারে গত শনিবার কথা হয় বিশু ঘোষের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আমার মাঠা সবাই পছন্দ করেন। বর্তমানে ২০-২৫ মণ তৈরি করছি। আরও ১০-১৫ মণ তৈরি করলেও বিক্রি হয়ে যাবে। কিন্তু এত মাঠা তৈরি করার মতো অবস্থা আমার নেই।’

বেড়া পৌর এলাকার কলেজশিক্ষক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘এখানে ইফতারিতে মাঠা একটি ঐতিহ্যবাহী উপকরণ। দেশের আর কোথাও এমন স্বাদ ও বর্ণের মাঠা মিলবে না।’

 বেড়া বাজারের ব্যবসায়ী ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, বেড়ার মাঠা বিশেষ করে বিশু ঘোষের মাঠা অত্যন্ত ঘন। কেউ কেউ শরবত বানানোর জন্য এতে পানি মেশান। এর সঙ্গে দেন লেবু ও বরফকুচি। ইফতারিতে এ শরবত এখানকার দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!