বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

বেড়ায় দখল জলাশয় উন্মুক্ত ঘোষণা, আ’লীগ নেতার কারাদণ্ড

image_pdfimage_print

আরিফ খাঁন, বেড়া, পাবনা: পাবনার বেড়া উপজেলায় প্রভাবশালীদের দখলে থাকা একটি জলাশয়কে দখলমুক্ত করে অভয়াশ্রম ও অপর আরেকটিকে জলাশয়কে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত ঘোষণা করেছেন ইউএনও আসিফ আনাম সিদ্দিকী।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার চাকলা ও কৈটলা ইউনিয়নের শেষাংশে অবস্থিত ‘পীতম্বর জলা’ নামের জলাশয়টি অভয়াশ্রম ঘোষণা ও বড় জলা নামের জলাশয়টিকে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে সাইনবোর্ড টানিয়ে দেন বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আনাম সিদ্দিকী।

এ সময় ‘পীতম্বর জলা’ জলাশয়টি দখলমুক্ত করার কাজে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগে চাকলা ইউনিয়নের তাঁরাপুর সাত নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সোমের শেখকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এলাকাবাসী জানান, ওই জলাশয়টি মূলত কাগেশ্বরী নদী ও বেড়া উপজেলার কয়েকটি বিলের মধ্যে সংযোগ স্থাপনকারী একটি সরকারি খাল যেটি কাগেশ্বরী নদীতে এসে মিলেছে।

দুটি অংশে বিভক্ত জলাশয়টির মোট আয়তন প্রায় ৬৫ একর।

এর মধ্যে ২.৮ একর আয়তনের একটিকে মৎস্য অভয়াশ্রম করা হয়েছে। জানা যায় ২০১২ সালের পর থেকে এ জলাশয়টি কাউকেই ইজারা দেওয়া হয়নি।

কিন্তু তা সত্বেও মৎস্য সম্পদে ভরপুর থাকায় স্থানীয় প্রভাবশালীরা জলা দুইটি দখলে রেখেছিল।

বিশেষ করে বর্ষা মৌসুম এলেই এর দখল নিয়ে প্রভাবশালীদের মধ্যে শুরু হয় মারাত্মক উত্তেজনা। এর আগে বেশ কয়েকবার জলাশয়ের দখলকে কেন্দ্র করে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।

স্থানীয় মৎস্যজীবীসহ সাধারণ মানুষ দীর্ঘদিন ধরে জলাশয়টি প্রভাবশালীদের দখলমুক্ত করে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, এবার বর্ষা আসার পর জলাশয়ের দখল নিয়ে চাকলা ইউনিয়নের তাঁরপুর আওয়ামী লীগ নেতা সোমের শেখের লোকজনের সঙ্গে কৈটলা ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আব্দুল মোতালেবের লোকজনের চরম উত্তেজনা দেখা দেয়।
এমনকি কিছুদিন আগে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এমন অবস্থার মধ্যেই মাস দুয়েক আগে সোমের শেখ ও তাঁর লোকজন ‘পীতম্বর জলা’ নামের জলাশয়টি ইজারা নিয়েছেন বলে দাবি করে জলাশয়ের বিভিন্ন অংশে গাছের ডাল ফেলে দখলে নেন।
এতে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হলে উপজেলা প্রশাসন ২৪ আগস্ট সেখানে অনির্দিষ্টকালের জন্য ১৪৪ ধারা জারি করে।

এর পাশাপাশি পাঁচ দিনের মধ্যে সব ধরণের ডাল সরিয়ে নেওয়ার জন্য লিখিত নির্দেশ দেওয়া হয়। একই সঙ্গে জলাশয়টি ইজারা দেওয়া হবে না বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়।

কিন্তু এর পরেও জলাশয়ের দখল না ছেড়ে গত ৬ সেপ্টেম্বর ‘পীতম্বর জলা’ নামের জলা ও বড় জলা নামের জলাশয় দুইটি থেকে মাছ ধরার অনুমতি চেয়ে সোমের শেখের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক, ইউএনও ও উপজেলা মৎস্য কার্যালয় বরাবর আবেদন করা হয়।

মাছ ধরার অর্থে স্থানীয় মসজিদের উন্নয়ন করা হবে বলে আবেদনে উল্লেখ করা হয়।

অবশেষে ‘পীতম্বর জলা’ নামের জলাশয়টি দখলমুক্ত করতে বুধবার বিকালে ইউএনও ভ্রাম্যমাণ আদালত গঠন করে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুল মতিনকে সঙ্গে নিয়ে অভিযান চালান।

এ সময় সরকারি নির্দেশ অমান্য করা ও দখলমুক্ত করার কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত আওয়ামী লীগ নেতা সোমের শেখকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

এ ছাড়াও কৈটলা ইউপি সদস্য আব্দুল মোতালেবকে সতর্ক করে দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে বড় জলা নামের জলাশয়টিকে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত ঘোষণা করে সেখানেও সাইনবোর্ড টানিয়ে দেওয়া হয়।

বড় জলা নামের জলাশয়টি দখলমুক্ত করে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

স্থানীয় আট থেকে ১০ জন এ ঘটনায় আনন্দ প্রকাশ করে জানান, মাছেভরা জলাশয়টি থেকে দীর্ঘদিন সাধারণ মানুষ মাছ ধরতে পারেতন না।

নেতারা মসজিদ সমিতির নাম ভাঙ্গিয়ে নিজেদের পকেট ভরে। এখন থেকে তাঁরা নির্ভয়ে সেখান থেকে মাছ ধরতে পারবেন বলে জানান ও ইউএনও কে ধন্যবাদ জানান তাঁরা।

কৈটলা ইউপি সদস্য আব্দুল মোতালেব বলেন, ‘পীতম্বর জলাটি মৎস অভয়াশ্রম ও বড় জলা সর্বসাধারণের উন্মুক্ত করে দেওয়ায় আমরা খুশি হয়েছি। আর প্রশাসন যে নির্দেশ দিয়েছে তা আমরা অবশ্যই মেনে চলব।’

ইউএনও আসিফ আনাম সিদ্দিকী বলেন, ‘জলাশয়টি প্রভাবশালী কয়েকটি পক্ষ দখল করে রেখেছিল। বার বার নির্দেশের পরেও তারা দখল না ছাড়ায় অভিযান চালিয়ে শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

এলাকার সাধারণ মানুষ যাতে জলাশয় থেকে উপকৃত হয় সে ব্যাপারে আমাদের সতর্ক দৃষ্টি থাকবে।’

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!