ঢাকাশনিবার , ২২ জানুয়ারি ২০২২

বেড়ায় বহিস্কৃত আ.লীগ নেতার ছেলে গাঁজাসহ আটক

News Pabna
জানুয়ারি ২২, ২০২২ ১০:২২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পাবনা প্রতিনিধিঃ পাবনার বেড়া উপজেলার হাঁটুরিয়া- নাকালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক এ কে এম সায়েম মনি’র ছেলে মোনন (২২) কে ৫০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করার খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) দুপুরে বেড়া মডেল থানার এস আই জুলহাস তাকে ৫০ গ্রাম গাঁজা সহ আটক করেন।

থানা সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশ জানতে পারে মোনন দীর্ঘদিন ধরে গোপনে এলাকায় মাদক ব্যবসা করে আসছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে এস আই জুলহাস তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হাঁটুরিয়া- নাকালিয়া ইউনিয়নের জগন্নাথপুর পূর্ব পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেন। এ সময় তার দেহ তল্লাশি করে ৫০ গ্রাম গ্রাম গাঁজা পাওয়া যায়। এসময় জগন্নাথপুর এলাকা থেকে মাদকের ওয়ান্টের আসামি অহাব (৪০) কেও আটক করা হয়।

এ ব্যাপারে বেড়া মডেল থানা অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) অরবিন্দ সরকার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মোনন এর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু হয়েছে। রবিবার বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে। তিনি আরো জানান মাদক ব্যবসায়ী যেই হোক না কেন কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, আসামী মনোন এর পিতা এ কে এম সায়েম মনিকে মাদকের সাথে সম্পৃক্ততা থাকায় ২০১৯ সালে হাটুরিয়া-নাকলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক পদ হতে অব্যাহতি দেয়া হয়। সে সময় হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়নের নব নির্বাচিত সভাপতি মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক এক সভায় জানান, হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম সায়েম মনি একজন মাদকাসক্ত। তিনি মাদকের সাথে সরাসরি যুক্ত।

তিনি হাটুরিয়া- নাকালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দলীয় অফিস কক্ষে বসেই নিয়মিত মাদক সেবন করেন বলে বেড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ও আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীসহ এলাকাবাসী অভিযোগ করেন। এতে আওয়ামী লীগের দলীয় ভাবমূর্তি প্রচন্ডভাবে ক্ষুন্ন হয়। ইউনিয়ন কাউন্সিলর গঠনের সময় দলীয় শর্ত ছিল যে, কোন মাদকাশক্ত ব্যাক্তি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হতে পারবেন না।

এনকে এম সায়েম মনি গত ২০১৯ সালের ৩১ অক্টোবর তারিখের কাউন্সিলে হাটুরিয়া-নাকালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তিনি দলীয় শর্ত অমান্য করে ডোপ টেস্টে উত্তীর্ণ হওয়ার প্রমাণপত্র দলীয় কার্যালয় দাখিল করেছিলেন না । অর্থাৎ তিনি দলীয় শৃঙ্খলা ও দলীয় শর্ত লংঘন করেছিলেন। তিনি ডোপ টেস্টে উত্তীর্ণ হওয়ার প্রমাণপত্র দলীয় কার্যালয়ে জমা প্রদান না করার কারণে সকল প্রকার দলীয় কার্যক্রম বিঘ্নিত হয়।

এমতাবস্থায় দলীয় কার্যক্রম ও দলীয় ভাবমূর্তি সমুজ্জ্বল রাখার স্বার্থে অন্যথায় হাটুরিয়া-নাকালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক এ কে এম সায়েম মনি ডোপ টেস্টে উত্তীর্ণ হওয়ার প্রমাণ পত্র দলীয় কার্যালয়ে দাখিল না করায় এ কে এম সায়েম মনিকে ২০১৯ সালের ৩১ অক্টোবর মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের এর স্বাক্ষরিত উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় প্যাডে তাঁকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি প্রদান করেন।

তার ছেলের এমন কার্যকলাপে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও জনসাধারণের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।