বড় বোনকে হত্যা দেখে ফেলায়, ছোট বোনকেও হত্যা

রংপুরে দুই বোনের মৃত্যু নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে গ্রেফতার মাহফুজার রহমান। তিনি হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

জবানবন্দিতে তিনি বলেছেন, সুমাইয়াকে শ্বাসরোধে হত্যা ঘটনা দেখে ফেলায় সুমাইয়ার ছোট বোন জান্নাতুল মাওয়াকেও শ্বাসরোধে হত্যা করেন।

জবানবন্দি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহানগর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রশীদ।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রংপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন মাহাফুজার রহমান (২২)।

জবানবন্দিতে মাহফুজার বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে সুমাইয়ার বাড়িতে যান মাহফুজার। এ সময় ওই বাড়িতে কেউ ছিলেন না। সেখানে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে তাকে হত্যা করে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে চলে যাওয়ার সময় পাশের ঘরে থাকা ছোট বোন দেখতে পায়। এ কারণে তাকেও গলা টিপে ধরেন। একপর্যায়ে তাকেও ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেন।

শুক্রবার বিকেলে নগরের গণেশপুর এলাকার নিজ বাড়ি থেকে শিক্ষার্থী সুমাইয়া আকতার (১৬) ও জান্নাতুল মাওয়া (১৪) নামে দুই বোনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তারা দুজন সম্পর্কে চাচাতো বোন।

এ ঘটনায় শনিবার সকালে একাধিক ব্যক্তিকে অজ্ঞাতনামা দেখিয়ে একটি হত্যা মামলা করেন নিহত জান্নাতুল মাওয়ার বাবা মমিনুল ইসলাম। ওইদিনই মাহফুজার রহমানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। রোববার বিকেলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির পর মাহফুজারকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।