ভাঙচুরের মামলায় জামিন হয়নি মৃত্যুদণ্ড পাওয়া মাও. আ. সুবহানের

পাবনা প্রতিনিধি : মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া জামায়াত নেতা মাওলানা আব্দুস সুবহানের বিরুদ্ধে একটি হামলা-ভাঙচুরের মামলায় জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো তার জামিন নামঞ্জুর করা হলো। একই সঙ্গে মামলার সব সাক্ষীর বিরুদ্ধে সমন জারি করে আগামী ১০ অক্টোবর তাদের হাজির হওয়ার আদেশ দেন আদালত।

বুধবার (২১ জুন) বেলা তিনটায় পাবনার আমলি আদালত-১ এর বিচারক অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. রেজাউল করিম এসব আদেশ দেন।

আসামিপক্ষের প্রধান আইনজীবী সুলতান মাহমুদ খান এহিয়া জানান, বুধবার বেলা তিনটায় ওই আদালতে মাওলানা সুবহানের পক্ষে জামিন আবেদন করা হয়।

বিচারক শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করেন এবং আগামী ১০ অক্টোবর সব সাক্ষীকে হাজিরার নির্দেশ দেন।

শুনানির সময় মাওলানা আব্দুস সুবহান কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গত ১১ এপ্রিল প্রথমবারের মতো এই মামলায় মাওলানা সুবহানের পক্ষে জামিন আবেদন করা হলে তা নামঞ্জুর করে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন আদালত।

২০০৩ সালের ৩০ আগস্ট পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের তিনটি গ্রামের ১৮২টি বাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

সেই ঘটনার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল কুদ্দুস বাদি হয়ে মাওলানা সুবহানকে প্রধান আসামি করে ৩১ জনের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের ২ এপ্রিল পাবনা সদর থানায় একটি মামলা করেন।