শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

ভাঙ্গুড়ায় অভিমান করে কিশোরীর আত্মহত্যা

image_pdfimage_print

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি : বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে পাবনার ভাঙ্গুড়ায় গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে জান্নাতুল ফেরদৌস (১৭) নামের একজন কিশোরী।

মঙ্গলবার (০৭ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের অষ্টমনিষা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। জান্নাতুল ওই গ্রামের কৃষক বুরুজ আলীর মেয়ে।

সে এ বছর অষ্টমনিষা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছিল। এনিয়ে ভাঙ্গুড়ায় এক দিনে দুটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটল।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জান্নাতুল ফেরদৌস এ বছর এসএসসি পাস করে কলেজে ভর্তির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল। সম্প্রতি পারিবারিক বিষয় নিয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে জান্নাতুলের সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না।

এতে বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে গত দুই-তিন দিন ধরে জান্নাতুল ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া করেনি।

একপর্যায়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ির সকলের অজান্তে নিজ ঘরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে সে। পরে পরিবারের সদস্যরা লাশ উদ্ধার করলেও বিষয়টি থানা পুলিশকে অবগত করেনি।

এদিকে এদিন সকালে উপজেলার পারভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের কালিকাদহ গ্রামে স্বামী তালাক দেওয়ার ঘটনায় গৃহবধূ মৌমিতা গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে।

অষ্টমনিষা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনসার আলী বলেন, একজন শিক্ষার্থীর অকালে চলে যাওয়া খুবই দুঃখজনক। জান্নাতুলের আচার-ব্যবহার ব্যবহার ভালো ছিল। কেন সে এই কাজ করল বিষয়টি খতিয়ে দেখা দরকার।

ভাঙ্গুড়া থানার ডিউটি অফিসার আবুল কালাম জানান, এ ঘটনায় কেউ থানায় কোনো অভিযোগ করেনি। বিষয়টি খোঁজ-খবর নিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে অষ্টমনিষা গ্রামের ইউপি সদস্য আব্দুল জলিল খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পারিবারিক অশান্তির কারণে এসএসসি পাস করা জান্নাতুল ফেরদৌস গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

তবে কি কারণে পারিবারিক অশান্তি লেগেছিল সেটা পরিষ্কারভাবে বুঝা যাচ্ছে না। পরিবারের কেউ এ ব্যাপারে এখনো বিস্তারিত জানায়নি।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!