ঢাকারবিবার , ১৬ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভাঙ্গুড়ায় তৈরি হচ্ছে ভেজাল পশু খাদ্য, ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন খামারীরা

News Pabna
জানুয়ারি ১৬, ২০২২ ১০:৩২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধিঃ পাবনার ভাঙ্গুড়ায় দেদারছে উৎপাদন হচ্ছে ভেজাল পশু খাদ্য। এসব খাদ্য প্যাকেটজাত করে বাজারেও ছাড়া হচ্ছে নির্বিঘ্নে। এজন্য মিলের মালিকরা ব্যবহার করছে অন্য কোম্পানির লোগোযুক্ত প্যাকেট।

সম্প্রতি বড়ালব্রিজ বাজারে সেঞ্চুরী ময়দার লোগোযুক্ত প্যাকেটে বাজারজাত করতে দেখা যায় ভেজাল পশু খাদ্য। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন গো-খাদ্য ব্যবসায়ী বলেন, বেশির ভাগ ব্যবসায়ী কোম্পানির তৈরি পশুখাদ্য কিনে এনে অধিক লাভের আশায় গুদামে ভেজাল মিশ্রিত করছে এবং সেগুলো আবার রিপ্যাক করে বাজারে ছাড়ছে। অনেকে আবার অতি নিম্নমানের উপাদান ব্যবহার করে গুদামের মধ্যে মিল বসিয়ে তৈরি করছে ভেজাল খাদ্য।

এক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের তদারকি না থাকায় ভেজাল খাদ্য খেয়ে পশুর যেমন স্বাস্থ্য ভাঙছে তেমনি খামারীরাও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। ছোটবিশাকোল গ্রামের ডেইরী খামারী আলিমুদ্দিন ও কলকতি গ্রামের নুরুজ্জামান বলেন, ভেজাল গোখাদ্য খেয়ে গাভীর দুধ উৎপাদন কমে গেছে।

চরভাঙ্গুড়া গ্রামের রহিম খা ও বিএলবাড়ি গ্রামের মোকলেস বলেন, বড়ালব্রিজ ও শরৎনগর বাজারের গোখাদ্য ব্যবসায়ীরা কোম্পানির খাদ্যের সাথে বেজাল মিশ্রিত করে বাজারে বিক্রি করায় সেগুলো খেয়ে গাভীর স্বাস্থ্যই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

ভাঙ্গুড়া উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা: জহুরুল ইসলাম বলেন, অধিদপ্তরের লাইসেন্স ব্যতিত কেউ পশু খাদ্য উৎপাদন করতে পারবেনা। তিনি আরো বলেন, আমার জানা মতে এখানে কাউকেই গো-খাদ্য উৎপাদনের লাইসেন্স দেওয়া হয়নি। তাই কেউ যদি মিল স্থাপন করে ডেইরী ফিড তৈরি করে সেটা অবৈধ।

তেমনি কোম্পানি থেকে ফিড কিনে এনে যারা নিম্নমানের উপাদান মিশিয়ে রিপ্যাক করছে সেটাও অবৈধ। তবে অভিযোগ পেলে ভেজাল খাদ্য উৎপাদনকারী ও ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ওই কর্মকর্তা জানান।