ভাঙ্গুড়ায় ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু

ভাঙ্গুড়ায় ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু

ভাঙ্গুড়ায় ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি: ভাঙ্গুড়া উপজেলায় চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় সাদিয়া ইসলাম ওরফে সুমাইয়া (১১) নামের তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

আজ শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিশুর মৃত্যুর পর  এলাকাবাসী ক্লিনিক মালিক ও চিকিৎসকদের ঘেরাও করে রাখে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

ভাঙ্গুড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাসুদ রানা জানান, ভাঙ্গুড়া উপজেলার বেতুয়ান গ্রামের পল্লী চিকিৎসক শহিদুল ইসলামের মেয়ে সাদিয়া ইসলাম ওরফে সুমাইয়াকে অ্যাপেনডিক্স অপারেশনের জন্য ভাঙ্গুড়ার হেলথ কেয়ার অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

আজ সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই ক্লিনিকের মালিক আবদুল জব্বার নিজেই তাকে অচেতন করতে ইনজেকশন দেন। এরপর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের কনসালট্যান্ট ডা. মহিবুল হাসান শিশুর অস্ত্রোপচার করেন। এ সময় তার মৃত্যু ঘটে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় চরম উত্তেজনা দেখা দেয়।

নিহত স্কুলছাত্রীর বাবা বেতুয়ান গ্রামের পল্লী চিকিৎসক শহিদুল ইসলাম জানান, ক্লিনিক মালিক জব্বার অ্যানেসথেসিস্ট না হয়েও প্রায়ই রোগীদের অজ্ঞান করে থাকেন। তা ছাড়া ডা. মহিবুল আলমের ভুল চিকিৎসায় তাঁর মেয়ের মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে ভাঙ্গুড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রবের সঙ্গে সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আত্মীয়স্বজনের অনুরোধে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।