সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ১১:০৯ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

মদ খেয়ে সড়কে মাতলামি- ধনীর দুলাল গ্রেফতার

image_pdfimage_print

নিউজ ডেস্ক : রাজশাহীতে মদ্যপ অবস্থায় দামি গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বেপরোয়া চলাচলের অভিযোগে এক ধনীর দুলালকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। নগরীর সিএন্ডবি মোড় এলাকায় মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালিয়ে গাড়িটি আটক করেন।

ওই গাড়ি থেকে কয়েক বোতল বিদেশি মদ জব্দ করা হয়। পরে যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শাহানুর রহমান আনন্দ (৩৪) নামের ওই যুবককে রাতেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে তার পেট ওয়াশ করা হয়েছে।

গ্রেফতার হওয়া শাহানুর রহমান আনন্দ নগরীর বড় রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী আনিছুর রহমানের ছেলে। তার বাড়ি নগরীর রাজপাড়া থানার চণ্ডীপুরে। এ ঘটনায় সিটি-ডিবির এসআই আমিনুর রহমান বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেছেন।

পুলিশ জানায়, শাহানুর রহমান আনন্দের ব্যবহৃত প্রিমিও সুপার ব্র্যান্ডের নতুন প্রাইভেটকারটি তল্লাশি করে সিটের উপর রাখা বিদেশি মদের বোতল জব্দ করা হয়। পাশাপাশি গাড়িটিও জব্দ করা হয়েছে। মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে রাস্তায় জনদুর্ভোগ ও হুমকি সৃষ্টির করার অপরাধে তাকে গ্রেফতারের পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার পেট ওয়াশ করা হয়েছে। পরে অবৈধ মদ রাখার অভিযোগে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে পুলিশ মামলা করেছেন।

এদিকে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শাহানুর রহমান আনন্দ প্রথমে রাত সাড়ে ৮টার দিকে একটি ট্রপার জিপ গাড়ি নিয়ে নগরীর সিএন্ডবি মোড় এলাকার একটি মিষ্টির দোকানের সামনে অবস্থান নেন। এ সময় সড়কের মাঝখানে গাড়ি রেখে সে মাতলামি করছিল। স্থানীয়রা তাকে গাড়িটি সরাতে বললেও না সরিয়ে উল্টো একজন পথচারীকে হেনস্থা করেন।

ওই পথচারী শেষে পালিয়ে রক্ষা পান। এর কিছুক্ষণ পরে জিপ গাড়িটি নিয়ে সেখান থেকে সে স্থান ত্যাগ করেন। এদিকে খবর পেয়ে ডিবির একটি টিম তাকে ফলো করছিল।

এদিকে রাত ১০টার দিকে আবারও সে একটি নতুন প্রিমিও সুপার গাড়ি নিয়ে একই স্থানে যায়। আবারও তিনি গাড়িটি সড়কের মাঝখানে রেখে আগের মতোই মাতলামি শুরু করেন। এ সময় পথচারীরা প্রতিবাদ করলে তিনি একজনকে গাড়ি চাপা দেয়ার চেষ্টা করেন। ওই মুহূর্তে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ডিবি পুলিশের একটি দল গাড়িসহ তাকে আটক করেন।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উপ- কমিশনার আবু আহাম্মদ আল মামুন বলেন, আনন্দ মাতাল অবস্থায় ছিলেন। আটকের পরও আনন্দ পুলিশের সঙ্গে বাক-বিতণ্ডায় জড়ান। ওই যুবক মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে রাস্তায় জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছিলেন। এ কারণে তাকে আটকের পর তার পেট থেকে মদ বের করার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। রাতেই আনন্দের পেট ওয়াশ করা হয়েছে।

তিনি জানান, আনন্দ বর্তমানে হাসপাতালে পুলিশ পাহারায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। স্বাভাবিক হলে তাকে আদালতে পাঠানো হবে। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা করা হয়েছে।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!