বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

মুশফিকের বেসামাল আচরণে সমালোচনার ঝড়

image_pdfimage_print

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের শ্বাসরুদ্ধকর এলিমিনেটরে বরিশালকে ৯ রানে হারিয়ে কোয়ালিফায়ারে পৌঁছে গেল বেক্সিমকো ঢাকা। তবে ম্যাচের ফলাফলকে ছাপিয়ে আলোচনার ঝড় তুলেছে ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের বেসামাল আচরণে।

হারলেই বিদায়! এমন সমীকরণ সামনে নিয়েই আজ এলিমেনেটরে ফরচুন বরিশালের মুখোমুখি হয় বেক্সিমকো ঢাকা। এমন ম্যাচে স্বাভাবিকভাবেই চাপে থাকার কথা ক্রিকেটারদের। সেই চাপেই যেন মেজাজ হারিয়ে ফেললেন ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। পুরো ম্যাচেই সতীর্থদের সঙ্গে উত্তেজিত আচরণ করতে দেখা গেছে তাকে। এমনকি ফিল্ডার নাসুম আহমেদকে মারতে দুইবার হাতও উঠে যায় মুশির!

প্রথম ঘটনাটি বরিশালের ইনিংসের ১৩তম ওভারের। ৪৮ বলে তখন বরিশালের দরকার ৯৬ রান। নাসুমকে এগিয়ে এসে বিশাল এক ছক্কা মেরেছিলেন আফিফ হোসাইন। ওই সময় ছক্কা খাওয়াতে মুশফিক যারপরনাই ছিলেন বিরক্ত। পরের বলেই আফিফ মিডউইকেটে বল ঠেলে সিঙ্গেল নিয়েছেন। তখন নিজের পজিশন ছেড়ে বোলিং কুড়িয়ে আনতে যান নাসুম। এদিক থেকে যান মুশফিকও। তবে বলটি হাতে তুলে নিয়েছিলেন মুশফিক-ই, কিন্তু বলটি উইকেটের দিকে না ছুঁড়ে নাসুমকেই মারার জন্য উদ্যত হন উত্তেজিত মুশফিক!

পরের ঘটনাটি ঘটে ১৭তম ওভারের। বাঁহাতি পেসার শফিকুলের বলে মারতে গিয়ে এবার উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দেন আফিফ। অনেক উপরে ওঠা বলটি লুফে নিতে শর্ট ফাইন লেগ অঞ্চলে ছুটে যান মুশফিক। ক্যাচটি ধরতে ছুটছিলেন ওই অঞ্চলের ফিল্ডার নাসুমও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নিজে দাঁড়িয়ে থেকে মুশফিককে ক্যাচ নেওয়ার সুযোগ করে দেন নাসুম। তবে দুজনের মধ্যে একটু ধাক্কা লাগে বটে। যে কারণে মুশফিক ফের একই ভঙ্গিতে নাসুমকে মারার জন্য উদ্যত হয়েছিলেন! যদিও ক্যাচটি নিতে তেমন সমস্যা হয়নি মুশফিকের।

তবে স্বাভাবিকভাবেই অধিনায়কের কাছ থেকে এমন আচরণ পেয়ে বিস্মিত ছিলেন নাসুম। উইকেট পেয়ে যেখানে উল্লাস করার কথা! উল্টো নাসুম পেলেন ‘অপ্রত্যাশিত’ আচরণ। যা ক্রিকেটের চেতনার সঙ্গে বড্ডই বেমানান।

অবশ্য এলিমেনেটর ম্যাচে কেবল নাসুমের সঙ্গেই মুশফিক এমন আচরণ করেননি। পুরো ম্যাচজুড়েই উইকেটের পেছন থেকে উত্তেজিত আচরণ করতে দেখা গেছে টাইগারদের সাবেক এই অধিনায়ককে!

যদিও ম্যাচ শেষে ফিল্ডিং নিয়ে অসন্তোষও প্রকাশ করেন মুশফিক। তিনি বলেন, “হ্যাঁ, তা তো অবশ্যই। ফিল্ডিং নিয়ে হতাশ ছিলাম তবে এইটা খেলারই অংশ। বোলাররা তাদের কাজটা ঠিকভাবেই করতে পেরেছে এবং অনেকগুলো সুযোগ তৈরি করেছে যেটা কিনা ভালো লক্ষণ। এই জয় সামনের ম্যাচের আগে আত্মবিশ্বাস জোগাবে আমাদের। আশা করছি পরের ম্যাচে আরও ভালো পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামতে পারব এবং সেগুলো প্রথম ছয় ওভারে বাস্তবায়ন করতে পারব।”

তবে মুশফিকের এমন আচরণের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও গণমাধ্যমে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। বিদেশি ক্রিকেট সমর্থকদের অনেকেও নিন্দা করছেন মুশফিকের এমন আচরণের।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!