বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০১:১২ অপরাহ্ন

রূপপুর প্রকল্প- পাবলিক প্লেসে থাকবে রেডিয়েশন মাত্রা নির্দেশক মনিটর

বার্তাকক্ষ : পাবনার রূপপুরে নির্মিতব্য দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র সর্বোচ্চ নিরাপত্তায় গড়ে তোলা হচ্ছে। তেজস্ক্রিয় বর্জ্য এখান থেকে বাইরে বের হওয়ার ঝুঁকি যেমন থাকবে না, তেমনি পাবলিক প্লেসে স্থাপন করা হবে রেডিয়েশন মাত্রা নির্দেশক মনিটর।

সম্প্রতি এ প্রসঙ্গে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থাপতি ইয়াফেস ওসমান বলেন, এটা হলো থার্ড প্রজেক্ট ইন দ্যা ওয়ার্ল্ড। এটা ফুকুশিমার প্রেক্ষাপটে এসেছে। এই প্রোজেক্টটা এমনই যে, প্রত্যেকটা সেক্টর ‘মোর সেফ, মোর সেফ, মোর সেফ’ ফিলোসফিতে তৈরি হচ্ছে।

এ ছাড়াও পাবলিক প্লেসে স্থাপন করা হবে রেডিয়েশন মাত্রা নির্দেশক মনিটর।

তিনি জানান, চুক্তি অনুযায়ী নির্মাণ সহযোগী রাশিয়া ব্যবহার শেষে নিউক্লিয়ার বর্জ্য বা স্পেন্ট ফুয়েল ফিরিয়ে নেবে। রিয়্যাক্টরের মূল আইল্যান্ড বা এক্সক্লসিভ জোনের ৩০০ মিটারের বাইরে নিরাপদ থাকবে মানুষ। নির্মাণ, ব্যবস্থাপনা ও কারিগরি দিক সামলে নিরাপদ এই প্রযুক্তিতে দেশের সক্ষমতা বাড়াবে।

এদিকে পরমাণু চুল্লি শীতলীকরণে যে পরিমাণ পানির প্রয়োজন হবে, তা কী দীর্ঘমেয়াদে যোগাতে পারবে পদ্মা- এমন প্রশ্নে প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর বলেন, প্রসেস ওয়াটারে যে পরিমাণ পানি লাগবে, আমাদের পদ্মা নদীর শুকনো মৌসুমে যা থাকে তার সহস্র ভাগের এক ভাগ লাগবে কিনা, এতে সন্দেহ রয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বের ৩০টি দেশে সাড়ে চারশ’র বেশি পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু রয়েছে। এই সারিতে বাংলাদেশও যুক্ত হতে যাচ্ছে। রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য রাশিয়ায় শুরু হয়েছে ভারী যন্ত্রাংশ প্রস্তুত কার্যক্রম। অ্যাটমএনারগোম্যাস নামে রাশিয়ান কোম্পানির ওয়্যারহাউজে রিঅ্যাক্টর তৈরির কাজ চলছে।


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!