মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

লাশ চুরির ভয়ে ঘরের মধ্যে দাফন!

লাশ চুরির ভয়ে ঘরের মধ্যে দাফন!

image_pdfimage_print

লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি : নাটোরের লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া ইউনিয়নের পশ্চিমপাড়া গ্রামে বজ্রপাতে নিহত হাফিজুল ইসলাম (২৬) এর মরদেহ চুরির ভয়ে নিজ ঘরেই দাফন করেছেন বাবা আতাউর রহমান।

গত মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে ঘরের মধ্যে কবর খনন করে মরদেহ দাফন করা হয়েছে এবং এরপরই কবরের চারপাশ দিয়ে ইটের গাঁথনি দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়। সোমবার(২৪ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ওয়ালিয়া খামারের মাঠে পেঁয়াজ তোলার সময় হাফিজুল বজ্রপাতে নিহত হন।

ওয়ালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান অনিছুর রহমান হাফিজুলকে ঘরের মধ্যে কবর দেয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বজ্রপাতে হাফিজুল ইসলামের মৃত্যুর পর তার মরদেহকে ঘিরে রটতে থাকে নানা গুজব। জনমনেও এই মরদেহ নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠে।

ওয়ালিয়া এলাকার অনেক মানুষেরই ধারণা বজ্রপাতের কারণে মরদেহের আক্রান্ত একটি অংশ মূল্যবান ধাতবে পরিণত হয়। তাই মরদেহটি চুরির হয়ে যাওয়ার ভয়ে নিহত হাফিজুলের লাশ দাফন করা হয় ঘরের মধ্যে। তিনি আরও বলেন, বিষয়টি অনেকের কাছেই হাস্যকর হলেও এ ঘটনায় সমগ্র লালপুর জুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

নিহতের বাবা মতিউর রহমান জানান, গ্রামের অনেকেই বলাবলি করতে ছিল নিহত হাফিজুলের মরদেহ যদি সামাজিক কবরস্থানে দাফন করা হয়, তাহলে তার মরদেহটি রাতের অন্ধকারে চুরি হয়ে যাবে। তাই ছেলের মরদেহ চুরি না হয়, সেজন্য নিজ ঘরেই কবর তৈরী করে মরদেহ দাফন করেন তিনি।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!