শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

লোকবলসংকট, পশ্চিমাঞ্চলে ট্রেন নিয়ন্ত্রণে জটিলতা

image_pdfimage_print
লোকবলসংকট, পশ্চিমাঞ্চলে ট্রেন নিয়ন্ত্রণে জটিলতা

লোকবলসংকট, পশ্চিমাঞ্চলে ট্রেন নিয়ন্ত্রণে জটিলতা

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : পাকশী বিভাগীয় রেলযান নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ে লোকবলসংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে। এ কারণে রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলে পর্যাপ্তসংখ্যক ট্রেন চালানো যাচ্ছে না। ট্রেন নিয়ন্ত্রণে সৃষ্টি হচ্ছে জটিলতা। এতে নির্দিষ্ট সময়ে অনেক ট্রেন গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছে না।

পাকশী রেলযান নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় সূত্র জানায়, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের দুটি বিভাগ রয়েছে। এর একটি পাবনার ঈশ্বরদীর পাকশী ও অপরটি লালমনিরহাট বিভাগ। এ দুই রেল বিভাগের ৯০ শতাংশ ট্রেনের চলাচল, যাত্রী ও পণ্য পরিবহনের নিয়ন্ত্রণ, নির্দেশনা ও পর্যবেক্ষণ করা হয় পাকশী রেলযান নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় থেকে।

১৪৪টি স্টেশনের ওপর দিয়ে চলাচলের জন্য পাকশী রেলযান কার্যালয় থেকে চারটি শাখায় রেলপথ ভাগ করা হয়েছে।

এগুলো হলো ঈশ্বরদী-ঢাকা (জয়দেবপুর), ঈশ্বরদী-খুলনা, ঈশ্বরদী-চিলাহাটি ও খুলনা-রাজবাড়ী। লালমনিরহাট বিভাগের আটটি আন্তনগর যাত্রীবাহী ট্রেন ও ছয়টি মালবাহী ট্রেন পাকশী কার্যালয় থেকে নিয়ন্ত্রণ, চলাচল ও পর্যবেক্ষণ করা হয়।

কিন্তু এ কার্যালয়ে দীর্ঘদিন থেকে লোকবলের ঘাটতি রয়েছে। কার্যালয়ে মোট অনুমোদিত পদের সংখ্যা ১৮টি। এর মধ্যে প্রধান ট্রেন নিয়ন্ত্রকসহ আটটি পদে ট্রেন নিয়ন্ত্রক নেই।

প্রধান ট্রেন নিয়ন্ত্রকের পদ শূন্য রয়েছে দেড় বছর ধরে। এ পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন পাকশী বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা। বাকি সাত পদে ট্রেন নিয়ন্ত্রক না থাকায় অন্য কর্মকর্তারা দায়িত্ব পালন করছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা বলেন, ট্রেন নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় রেলের খুব গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর। তাই এ দপ্তরে দ্রুত শূন্যপদে লোক নিয়োগ দরকার।

পাকশী বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা শওকত জামিল মহসী বলেন, লোকবল বাড়ানোর জন্য ঊর্ধ্বতন দপ্তরে জানানো হয়েছে।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!