বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

‘লোভী’ গুগল!

য় দুই শ সমাজকর্মী টেক জায়ান্ট গুগলের দিকে মার্চ করেছেন। এ দলে গুগলের সদর দপ্তরের আশপাশের এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারাও ছিলেন। গুগলের প্রস্তাবিত মেগা ক্যাম্পাসের জন্যে স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে সান জোসে। এই ক্যাম্পাস করতে হলে সেখানে কমিউনিটি বেনিফিটস অ্যাগ্রিমেন্ট করতে হবে। আর এই দাবি নিয়েই গতকাল তারা মার্চ করেছেন গুগলের সদরদপ্তরের দিকে।

আলফাবেটের মালিকানাধীন গুগলের বিরুদ্ধে রিপাবলিকানদের অভিযোগ, এই প্রযুক্তি দানব সান জোসের গুরুত্বপূর্ণ ট্রানজিট হাব ডিরিডন স্টেশনের কাছে ভূমি নিয়ে তাদের ক্যাম্পাস বানানোর পরিকল্পনা করছে। এর আগে সান জোসের সিটি কাউন্সিল জমির দাম সংক্রান্ত প্রস্তাবনার অনুমোদন দেয়। গুগল সেখানে ৬৭ মিলিয়ন ডলারের ভূমি কিনবে তাদের মেগা ক্যাম্পাস বানানোর জন্যে। সান জোসের মেয়ের স্যাম লিক্কারর্ডো এখানকার ভূমি মালিকদের জানান, গুগলের পরিকল্পনা তাদের জন্যে লাভজনক হবে।

কিন্তু স্থানীয়রা একযোগে মাউন্টেন ভিউয়ের দিকে যেতে যেতে অন্যরকম বার্তা দিলেন। তারা ভূমি ছাড়তে রাজি নন। ‘ফাইট, ফাইট, ফাইট, ফাইট, হাইজিং ইজ এ হিউম্যান রাইট!’ স্লোগানে মুখরিত হয় তাদের জমায়েত। আবার ‘গুগল, গুজল, ইউ ক্যান্ট হাইড, উই ক্যান সি ইওর গ্রিডি সাইড!’ স্লোগানও দিতে থাকেন তারা। তাদের দৃষ্টিতে কথায় গুগল লোভী হয়ে উঠেছে।

এদের অনেকেই এ অঞ্চলে এত বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হলে কী কী ক্ষতি হতে পারে সে সম্পর্কে বক্তব্য রাখেন। সেখানে গৃহহীন মানুষের সংখ্যা বাড়বে। সেই সঙ্গে জীবনযাপন অনেক ব্যবয়বহুল হয়ে পড়বে বলে মনে করেন তারা।

এ কারণে কমিউনিটি বেনিফিটস অ্যাগ্রিমেন্ট চান তারা। বলেন, ২০১৫ সালে মাউন্টে ভিউয়ে গুগল যখন ৩.৪ মিলিয়ন বর্গফুটের ক্যাম্পাস বানাতে উদ্যত হয়, তখন স্থানীয় সমাজ কাঠামোর উন্নয়নে ৩৪০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করে। একই ভাবে সান জোসের ক্যাম্পানের কমিউনিটি বেনিফিটস এর জন্যে ৮৬০ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি করতে হবে বলে দাবি তোলেন তারা।


টুইটারে আমরা

© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial