মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন

করোনার সবশেষ
করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৮৩ জন, শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ২০১ জন আসুন আমরা সবাই আরও সাবধান হই, মাস্ক পরিধান করি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি।  

শপথ নিলেন পাবনার মেয়র শরিফ উদ্দিন প্রধান

বার্তাকক্ষ : পাবনার নবনির্বাচিত পৌর মেয়র শরিফ উদ্দিন প্রধানসহ রাজশাহী বিভাগের ১২টি পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলররা শপথ গ্রহণ করেছেন।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বিভাগীয় কমিশনার ড. হুমায়ুন কবীর তাদের শপথবাক্য পাঠ করান।

পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) শরীফ উদ্দিন প্রধান মাত্র ১২২ ভোটের ব্যবধানে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনিকে তিনি ১২২ ভোটে পরাজিত করেন।  

৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত এ পৌরসভার টান টান উত্তেজনার নির্বাচনে রাত সাড়ে ৯টায় পাবনা সদর উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মাহবুবুর রহমান বেসরকারিভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

এদিকে পাবনা পৌরসভায় ভোট গ্রহনের ১০ দিনের মাথায় মেয়র পদের ভোট আবার গণনার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। সেই সাথে ভোটের ফল প্রকাশের গেজেটের ওপর এক মাসের নিষেধাজ্ঞাও দেন হাইকোর্ট।

ফলে, পাবনা পৌরসভায় মেয়র পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) শরীফ উদ্দিন প্রধানের শপথ গ্রহন ও মেয়র পদে অধিষ্ঠিত হওয়ার পথ আটকে যায়। দেখা দেয় অনিশ্চিয়তা।

নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে ১ হাজার ২৬৫ ভোট বাতিল করা হয়। তাই পুনরায় ভোট গণনা চেয়ে গত ৫ ফেব্রুয়ারি হাই কোর্টে রিট করেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনি।

নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনির করা রিটের শুনানির পর বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো.কামরুল হোসেন মোল্লার ভার্চুয়াল বেঞ্চ বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রুলসহ এই আদেশ দেন।

এদিকে প্রকাশ্যে নৌকার বিরোধিতা করায় পাবনার ১৮ শীর্ষ নেতাকে শোকজ করা হয়।

এদিকে ১০ ফেব্রুয়ারির আদেশের মাত্র ৪দিন পরেই পাবনা সদর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদের ভোট পুনরায় গণনা করতে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ স্থগিত করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত।

শরীফ উদ্দিন প্রধানের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে ১৪ ফেব্রুয়ারি চেম্বার বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান এই আদেশ দেন।

এর আগে পাবনা সদর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) শরীফ উদ্দিন প্রধানকে বেসরকারিভাবে মেয়র পদে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়। গত ৭ ফেব্রুয়ারী তাকে বিজয়ী ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশিত হয়।

সব জল্পনা কল্পনা শেষে পাবনা পৌরসভায় নবনির্বাচিত মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন শরিফ উদ্দিন প্রধান।

এছাড়াও এই নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী নুর মোহাম্মদ মাসুম বগা ৭ হাজার ৫০৪ ভোট, জাতীয় পার্টির প্রার্থী চৌধুরী মোহাম্মদ মাহাবুবুল হক রাজন ২৭৬ ভোট ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক ১৬৫৯ ভোট পেয়েছিলেন।  

পাবনা ছাড়াও যেসব পৌরসভার জনপ্রতিনিধিরা শপথ গ্রহণ করেছেন সেগুলো হলো- রাজশাহীর মুণ্ডুমালা ও তানোর, পাবনা, চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুর, নাটোরের সিংড়া, নওগাঁ ও ধামইরহাট; বগুড়ার শিবগঞ্জ, ধুনট, নন্দীগ্রাম, গাবতলী এবং কাহালু।

বিভাগীয় কমিশনার প্রথমে মুণ্ডুমালা পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র সাইদুর রহমান, কেশরহাটের শহিদুজ্জামান শহিদ, পাবনার মেয়র শরিফ উদ্দিন প্রধান, কাহালুর আবদুল মান্নান, গাবতলীর সাইফুল ইসলাম, নন্দীগ্রামের আনিসুর রহমান, ধুনটের এজিএম বাদশা, শিবগঞ্জের তৌহিদুর রহমান মানিক, ধামইরহাটের আমিনুর রহমান, নওগাঁর নজবুল হক, সিংড়ার জান্নাতুল ফেরদৌস ও রহনপুরের মতিউর রহমান খানকে শপথবাক্য পাঠ করান।

এরপর ওই ১২ পৌরসভার ৩৯ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলরকে শপথবাক্য পাঠ করান। শেষে এসব পৌরসভার ১১৭ জন সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলরকে শপথ করানো হয়।

শপথবাক্য পাঠ শেষে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, পৌরসভা স্থানীয় সরকার বিভাগের একটি শক্তিশালী প্রতিষ্ঠান। কিছু পৌরসভা অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল হলেও সীমিত সম্পদ নিয়ে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।

নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশে তিনি বলেন, এখন থেকে মনে করতে হবে আপনি পৌর এলাকার সব মানুষের মেয়র ও কাউন্সিলর। জনগণ আপনাদের সম্মান দিয়েছেন। সেই সম্মান ধরে রাখতে হবে। কারণ আপনার নামের সঙ্গে একটা ‘সিল’ পড়ে গেছে। পরেরবার আপনি নির্বাচিত না হলেও সারাজীবনের জন্য আপনার নামের সঙ্গে ‘মেয়র’ বা ‘কাউন্সিলর’ শব্দটা যোগ হয়েছে। এটা একটা বিরল সম্মান। কাজেই এ সম্মান রক্ষা করে চলতে হবে।

পৌরসভা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে গত ৩০ জানুয়ারি রাজশাহী বিভাগের এই ১২ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এরপর বুধবার নবনির্বাচিতরা শপথগ্রহণ করলেন। তাদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার রাজশাহী বিভাগের পরিচালক মো. জিয়াউল হক ও উপপরিচালক ড. চিত্রলেখা নাজনীন উপস্থিত ছিলেন।

0
1
fb-share-icon1


শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের প্রিন্স অফ পাবনা

Posted by News Pabna on Thursday, February 18, 2021

© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!