সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ১১:০৬ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

শোবিজ ছেড়ে মুফতিকে বিয়ের পর নাম পরিবর্তন

image_pdfimage_print

শোবিজ দুনিয়াকে বিদায় জানিয়ে সানা খানের একজন মুফতিকে বিয়ের খবরে তোলপাড় ভারতীয় মিডিয়া। কয়েকমাস আগেই অভিনয় থেকে ধর্মের টানে অবসর নেওয়ার ঘোষণার পর এবার বিয়েটাও সেরে ফেললেন তিনি। ২১ নভেম্বর সুরাটে এক মুসলিম ধর্মগুরুকে বিয়ে করেন তিনি। পাত্র ভারতের গুজরাটের সুরাটের বাসিন্দা মুফতি আনাস সায়েদ।

এবার নাম বদলেছেন সানা খান। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের নামের আগে যোগ করেছেন স্বামীর নাম। ইনস্টাগ্রামে এখন তাঁর নাম দেখা যাচ্ছে সাইয়িদ সানা খান।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে সানা খান ও তার স্বামীর বিয়ের ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। গতকাল এই অভিনেত্রী ইনস্টাগ্রামে স্বামীর সঙ্গে প্রথম ছবি আপলোড দিয়ে ক্যাপশনে লেখেন, ‘আল্লাহর জন্য আমরা ভালোবেসেছি, আল্লাহর জন্য আমরা বিয়ে করেছি, আল্লাহ এই দুনিয়ায় আমাদের একসঙ্গে রাখুন এবং জান্নাতেও আমাদের পুনর্মিলন করুন।’
গত ৮ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক দীর্ঘ বার্তায় ৩৩ বছর বয়সী সানা খান বলিউড ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন এবং জানিয়েছিলেন ইসলামের পথে চলতে চান তিনি।

ক্যারিয়ারে হিন্দি, মালয়ালাম, তামিল, কন্নড় ও তেলেগু ভাষার সিনেমায় দেখা গেছে সানা খানকে। এ ছাড়া বিজ্ঞাপন ও রিয়েলিটি শোতে দেখা যায় তাঁকে। পাঁচ ভাষার ৫০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন সানা। ২০১২ সালে জনপ্রিয় ও বিতর্কিত টিভি রিয়েলিটি শো বিগ বসের প্রতিযোগী ছিলেন সানা এবং চূড়ান্ত পর্বে উঠেছিলেন।

২০০৫ সালে ‘ইয়ে হ্যায় হাই সোসাইটি’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয় সানা খানের। এরপর তিনি বলিউডে ‘হাল্লা বোল’, ‘জয় হো’, ‘ওয়াজা তুম হো’ ও ‘টয়লেট : এক প্রেম কথা’র মতো সিনেমা করেন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!