বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩৬ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

সংবাদ প্রকাশের পর গাজনার বিলের সেই সোঁতি বাঁধ অপসারণ

image_pdfimage_print

সুজানগর সংবাদদাতা : পাবনার সুজানগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী গাজনার বিলে অবৈধভাবে পেতে রাখা নিষিদ্ধ সোঁতি জালের ১০টি বাঁধ অপসারণ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

আজ সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) নিউজ পাবনা ডটকম পত্রিকায় ‘পাবনার ঐতিহ্যবাহী গাজনার বিলের মুখে একাধিক অবৈধ সোঁতিবাধ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর সুজানগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলীর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত গাজনার বিলের হরের জলা, বিলগন্ডহস্তী ও বাদাই জলকর সহ বিলের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে অবৈধ এ সব বাঁধ অপসারণ করেন।

তবে এসবের সাথে জড়িত কেউ গ্রেফতার হয়নি। পরে জব্দকৃত বাঁধ তৈরির উপকরণ বিনষ্ট করা হয়।

থানা পুলিশের সহযোগিতায় অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন পাবনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুর রউফ, উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, গাজনার বিলের উৎস মুখে অবৈধ সোঁতি জালের বাঁধ স্থাপন করে অবাধে মাছ নিধন করা হচ্ছিল। এনিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসে উপজেলা প্রশাসন।

অবশ্য এর আগে উপজেলা প্রশাসন বেশ কয়েকবার সোঁতি জালের বাঁধ স্থাপনে বাধা দিলেও প্রশাসনকে তোয়াক্কা না করে স্থাপন করা হয় এসব বাঁধ।

গাজনার বিলের বিভিন্ন স্থানে বাঁশ, চাটাই ও নেট জালের সাহায্যে বাঁধ দিয়ে বিলকে সংকুচিত করে বিলের নিষিদ্ধ সোঁতি জাল পেতে মাছ শিকার করা হয়।

এভাবে অবৈধ সোঁতি জাল পাতার কারণে ছোট-বড় সব ধরণের মাছ সহ বিলের জলজ প্রানীও ধরা পড়ে।

পাবনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুর রউফ জানান, এদিনের অভিযানে ১০টি সোঁতি জালের বাঁধ উচ্ছেদ করা হয়েছে।

আর ঐতিহ্যবাহী এ গাজনার বিলের পানিপ্রবাহ বাধাগ্রস্থ করে অবৈধভাবে কাউকে মাছ শিকার করতে দেওয়া হবেনা।

সুজানগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ রওশন আলী বলেন, মৎস্য রক্ষা ও সংরক্ষন আইন ১৯৫০ মোতাবেক উপজেলার গাজনার বিলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে অবৈধ সোঁতি জালের বাঁধ উচ্ছেদ করা হয়েছে।

এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!