‘সন্দেজনক আলাপ’ শুনে বদলে গেলো বিমানের রুট

অনলাইন ডেস্ক : স্লোভেনিয়া থেকে বিমানটি যাচ্ছিলো যুক্তরাজ্যে। বিমানে তিনজন যাত্রীর ‘জঙ্গি’ প্রসঙ্গে সন্দেহজনক আলাপ চলছে বলে কেবিন ক্রু পাইলটকে সতর্ক করলে বিমানটিকে জরুরিভাবে অবতরণ করানো হয়। খবর বিবিসির

ইজি-জেট পরিবহন সংস্থার বিমানটি শনিবার জার্মানির কোলন-বন বিমানবন্দরে সরিয়ে নেওয়া হয়। তিনজন যাত্রীকে গ্রেপ্তার করার পর জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বিমানের ১৫১ জন যাত্রীকেই নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

প্রায় তিন ঘন্টা বন্ধ রাখা হয় বিমানটির চলাচল।

তিনজন সন্দেহভাজন যাত্রীর মধ্যে একজনের কাছে থাকা একটি ব্যাকপ্যাক বিস্ফোরণের মাধ্যমে উড়িয়ে দিয়েছে পুলিশ।

কোলন বিমানবন্দরের একজন মুখপাত্র জানান, ‘তিনজন যাত্রীর মধ্যে যে আলাপ হচ্ছিল, সেটা শুনতে পেয়ে বিমানের অন্য যাত্রীরা বিমানকর্মীদের সে ব্যাপারে জানান।’

কোলন পুলিশের এক বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, ‘জঙ্গী বিষয়’ নিয়ে ঠিক কী আলাপ হচ্ছিলো জানা গেলেও এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। যাত্রী তিন জনরে বয়স ৩১, ৩৮ ও ৪৮ বছর।’

ওই বিমানের যাত্রী ড্যানিয়েল নুনান জানিয়েছেন, বিমানটি অবতরণের পর পুলিশ বিমানের ভেতর ঢুকে সন্দেহভাজন যাত্রীদের দুজনকে নিয়ে যায়। বিমানের সব যাত্রীকেই পুলিশ জেরা করেছে। তবে বিমানের যাত্রীদের মালপত্রে বা বিমানের ভেতর পুলিশ কোনও বিস্ফোরক দ্রব্য খুঁজে পায়নি।

জার্মানির সংবাদপত্র ‘দ্য বিল্ড’ জানিয়েছে আটক তিনজন ব্যক্তি লন্ডনের একটি সংস্থায় কাজ করেন ও তারা একটি দাপ্তরিক ভ্রমণ থেকে লণ্ডনে ফিরছিলেন।