বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

সাঁথিয়ায় ওলামালীগের পরিচয়ে জঙ্গি সম্পৃক্ততা- সেই অধ্যক্ষ বরখাস্ত

image_pdfimage_print

সাঁথিয়া প্রতিনিধিঃ পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার ধুলাউড়ী কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসাইনকে বুধবার সাময়িক বরখাস্ত করেছে মাদরাসা পরিচালনা কমিটি।

তার বিরুদ্ধে জামায়াত ও জঙ্গি কার্যক্রমে পৃষ্ঠপোষকতা করার অভিযোগে জঙ্গিবাদ সংক্রান্ত বই ল্যাপটপসহ আটক করে পুলিশ।

গত রোববার (১৩ অক্টোবর) রাত ১০টার দিকে পাবনার মনসুরাবাদ এলাকার ৫ নং সড়কের ১১৯ নম্বর বাড়ি থেকে তাকে ১৩ নারী জামায়াত কর্মীসহ গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরে পরিচালনা কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা জামাল উদ্দিন বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে এ বরখাস্ত করা হয়।

মুক্তিযোদ্ধা জামাল উদ্দিন আরও জানান, মাদরাসার অধ্যক্ষ পদটির লোভেই আনোয়ার হোসাইন আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের প্রশংসা করে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতেন।

তিনি ওই সব অনুষ্ঠানে নিজেকে উপজেলা ওলামালীগের নেতা বলে পরিচয় দিতেন। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাকে জয় বাংলা জয়, বঙ্গবন্ধু বলতেও দেখা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, ধুলাউড়ি মাদরাসার অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসাইন সাঁথিয়ায় ওলামা লীগের পরিচয় দিয়ে নেতা কর্মীদের সাথে মিশে স্বার্থ উদ্ধার করত।

অথচ পাবনাসহ বিভিন্নস্থানে তিনি জামায়াত ও জঙ্গি সংগঠনের পৃষ্ঠপোষকতা করতেন।

তারা আরও জানান, আনোয়ার হোসাইন ছাড়াও অনেক জামায়াত নেতাকর্মী ও মাদরাসার শিক্ষক, সুপাররা সাঁথিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদের সঙ্গে মিশে দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা ওলামালীগের আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক জিয়াউর রহমানের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, আনোয়ার হোসাইন নামে কেউই ওলামালীগের আহ্বায়ক কমিটিতে নেই।

তিনি হয়তো স্বার্থ হাসিলের জন্য ওলামালীগের পরিচয় দিতেন। এ ব্যাপরে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি কেন জানতে চাইলে তিনি জানান, আমরাতো জানতাম না সে ওলামালীগের পরিচয় দেয়।

সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম জামাল আহমেদ জানান, মাদরাসা অধ্যক্ষকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গ্রেফতারের পর পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাছিম আহম্মেদ জানান, দোতলা বাড়িটির নিচতলা জামায়াতের নারী সংগঠনের আস্তানা ছিল। এখান থেকেই তিনি নাশকতার ছক পরিচালনা করতেন।

তাদের সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সোমবার (১৪ অক্টোবর) পাবনা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!