শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:১৩ পূর্বাহ্ন

করোনার সবশেষ
করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৯৮ জন, শনাক্ত হয়েছেন ৪ হাজার ১৪ জন। আসুন আমরা সবাই আরও সাবধান হই, মাস্ক পরিধান করি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি।  

সাঁথিয়ায় খুন: থানায় মামলা, গ্রাম ছাড়া পুরুষ-মহিলা, লুটপাটের অভিযোগ

আরিফ খাঁন, বেড়া, পাবনাঃ পাবনার সাঁথিয়ায় দলীয় কোন্দলের জের ধরে আলহাজ (৩০) নামে এক যুবক খুনের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

গ্রেফতার ও ইজ্জতের ভয়ে মালামাল নিয়ে নারী ও পুরুষ গ্রামছাড়া। ব্যাপক লুটপাটেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার গৌরিগ্রাম ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন নিয়ে শ্রবেশ মোল্লা ও মোসলেম মাস্টার গ্রুপের বিরোধের জের ধরে গত বৃহস্পতিবার (০১ এপ্রিল) খুন হয় আলহাজ (৩০) নামের এক যুবক।

এ ঘটনায় শুক্রবার (০২ এপ্রিল) রাতে আলহাজের বাবা মানিক বাদী হয়ে মোসলেম মাস্টারকে প্রধান করে ৩২ জনকে আসামী করে সাঁথিয়া থানায় মামলা করেন।

এদিকে খুনের ঘটনার পরেই প্রতিপক্ষের অর্ধশত পরিবারের প্রায় দেড়শত পুরুষ সদস্য বাড়ী ছাড়া রয়েছে। ঘর-বাড়ি ছাড়া কিছু পরিবারের গরু, মহিষ ও দামী আসবাবপত্র পুলিশের সহায়তায় আত্মীয়দের বাড়িতে সরিয়ে নেয়া হয়।

তবে পুলিশের কড়া নিরাপত্তার পরও ঘুঘুদহ গ্রামের সলেমান, পিন্টু, কদ্দুস ও আতিকের বাড়িতে লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী পরিবার।

পিন্টুর বাড়ি থেকে লুট হওয়া দুটি গরু উপজেলার বিষ্ণুপুর থেকে ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে ফেরত নেন বলে জানান পিন্টুর আত্মীয় মানিক মোল্লা। পিন্টুর বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। বাড়ির আসবাবপত্র, বিছানাসহ সমস্ত জিনিসপত্র এলোমেলো রয়েছে।

কদ্দুসের স্ত্রী ফুলমতি ও আতিকের স্ত্রী কোলি জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে আমাদের মহিষ, গরু, ফ্রিজ, মোটর, পেঁয়াজ, স্বর্ণালংকারসহ আসবাবপত্র লুট করে নেয়।

এখন আমরা ইজ্জতের ভয়ে অন্যত্র পালানোর চেষ্টা করছি। রাত হলে প্রতিপক্ষ আমাদের উপর আক্রমন করতে পারে।

ঘুঘুদহ গ্রামের সোলেমানের স্ত্রী বুলবুলি খাতুন জানান, ঘটনার দিন আমার স্বামী সাঁথিয়ার হাটে গেছিল। সে এর কিছুই জানে না।

বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিপক্ষের লোকজন লাঠি ফালা নিয়ে হামলা চালিয়ে গরু,মহিষ নিয়ে যায়। তারা আমার বসতঘরের তালা ভেঙ্গে ফ্রিজ, টিভি স্বর্ণালংকারসহ নগদ অর্থ নিয়ে যায়।

তিনি কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার একটা ছেলেও নেই যে রক্ষা করবে। তিনি বলেন, আমার চাং থেকে পিয়াজ নিয়ে গেছে আজ রাতেও আসবে বলে গেছে অন্য একটি চাং থেকে পিয়াজ নিয়ে যাবে। ঘরের দরজার তালা ভেঙ্গে সব কিছু নিয়ে গেছে। আমি ইজ্জত ও প্রাণের ভয়ে বাবার বাড়িতে অবস্থান করছি।

রঘুরামপুর গ্রামের আবেদা খাতুন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে আমার মেয়ের জামাই মিরাজ বাড়িতে না থাকায় ওরা আমার মেয়ের গরু নিয়ে চলে গেছে।

এদিকে লুটের ভয়ে মালামাল নিয়ে শুক্রবার সকাল থেকে আত্মীয় বাড়িতে ছুটতে থাকে নারী সদস্যরা। রাহাদুলের স্ত্রী রাশিদা খাতুন ও সাইদুলের স্ত্রী লাকী খাতুনকে দেখা যায় বাড়ির আসবাবপত্র ভ্যানে করে সরিয়ে নিচ্ছে।

তারা এ প্রতিনিধিকে জানান রাতে লুটপাট হবে বলে আমরা জিনিসপত্র সরিয়ে নিচ্ছি।

নিহত আলহাজ্বের নানা ৯ নং ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি শরবেশ মোল্লা লুটপাটের বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, তারা নিজেদের জিনিসপত্র নিজেরাই অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে প্রতিপক্ষকে দোষারোপ করছে।

অপর দিকে বৃহস্পতিবার রাতে আটক করা ১০ আসামীকে শুক্রবার পাবনা জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। শুক্রবার বাদআসর নিহত আলহাজের জানাযা নামাজ শেষে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়।

সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, ঘুঘুদহ গ্রামটি অনেক বড় এবং বিল বেষ্টিত।

আমরা ২৫টি গরু উদ্ধার করে আত্মীয় স্বজনদের হাতে তুলে দিয়েছি। পুলিশের কঠোর অবস্থানের পরও যদি কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে তার অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

0
1
fb-share-icon1


শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের প্রিন্স অফ পাবনা

Posted by News Pabna on Thursday, February 18, 2021

© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!