বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

সাঁথিয়ায় খুরা রোগের প্রাদুর্ভাব; ২০টি বাছুরের মৃত্যু

ফাইল ছবি

image_pdfimage_print

সাঁথিয়া প্রতিনিধি : পাবনার সাঁথিয়ায় গরু-বাছুরের খুরা রোগের প্রাদুর্ভাব। এ রোগে প্রায় ২০ টি বাছুর মারা যাওয়ায় খামারী দিশাহারা হয়ে পড়েছে। ঘটনাস্থলে মেডিক্যাল টিম গঠন করে চিকিৎসাসহ ভ্যাক্সিনেশন (টিকা) করা হচ্ছে। প্রতি দিনই বৃদ্ধি পাচ্ছে আক্রান্ত এলাকা। মহামারি আকার ধারনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে স্থানীয়রা ধারণা করছেন।

এলাকাবাসী ও প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, গত ১০ মার্চ থেকে সাঁথিয়া উপজেলার নাড়িয়াগদাই গ্রামে গরুর বাছুরের খুরা রোগ দেখা দেয়। এলাকার খামারিরা প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা করলেও এ রোগের প্রাদুর্ভার বৃদ্ধি পেতে থাকে। প্রায় ৫০-৬০টি খামারির খামারের গরু-বাছুর খুরা রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ে।

এক পর্যায়ে গত ১০ মার্চ থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত নাড়িয়াগদাই গ্রামের খামারি রফিকুল ১টা, কালাম ফকির ১টা, মকুল ফকির ২টা, মজনু ৩টা, খালেক সরদারের ১টা, আক্তার সরদারের ১টা, ওহিদুল সরদারের ১টা, ইমানের ১টা বাছুরসহ প্রায় ২০ টি বাছুর মারা গেছে বলে জানা যায়।

খুরা রোগের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ জামাল উদ্দিন ও জেলা প্রাণি সম্পদ অফিসার ডাঃ আব্দুল গফুর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং মেডিক্যাল টিম গঠন করে খামারিদের গরু-বাছুরের চিকিৎসাসহ ভ্যাগসিনেশন করা হচ্ছে হচ্ছে।

প্রতি দিনই নতুন নতুন এলাকার খামারের গরু-বাছুর খুরা রোগ দ্বারা আক্রান্ত হচ্ছে বলে উপজেলা প্রাণি সম্পদ অফিসার জানান। খামারিরা জানান, এ রোগ যে কোন মুহুর্তে মহামারি আকার ধারন করতে পারে।

এলাকাবাসী জানান, উপজেলার নাড়িয়াগদাই গ্রামের খামারিদের প্রায় ৪০-৫০টি গরু-বাছুর খরা রোগে আক্রান্ত হয়েছে। প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ জামাল উদ্দিন জানান, আক্রান্ত গরু-বাছুরের চিকিৎসা দেয়াসহ অন্যান্য গরু-বাছুরের ভ্যাক্সিনেশন করা হচ্ছে।

যে কয়েকটি মারা গেছে সে গুলি প্রায় ৩ মাসের বাছুর। বর্তমানে রোগ অনেকাংশেই নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভাব হয়েছে। তবে নতুন নতুন খামারে তা ছাড়িয়ে পড়ছে।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!