বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৩৭ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

সাঁথিয়ায় গণধর্ষণের পর কিশোরীকে হত্যাচেষ্টা, গ্রেফতার-১

image_pdfimage_print

সাঁথিয়া প্রতিনিধিঃ পাবনার সাঁথিয়ায় এক কিশোরীকে গণধর্ষণের পর হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার (১৬ নবেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার করমজা ইউনিয়নের তলট গ্রামে। ঔ রাতেই ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।

সাঁথিয়া থানায় দায়ের করা অভিযোগ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মেয়েটি সপ্তম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় আর্থিক দীনতার কারণে লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায়।

ওর বাবা জেলার বাইরে একটি ইঁটভাটার শ্রমিকের কাজ করে। মা-ও গ্রামের ইঁটভাটার শ্রমিক।

শনিবার সন্ধ্যায় পাশ্ববর্তী করমজা ফকির পাড়া গ্রামের হালিমের ছেলে নিরব (১৬) নামে মেয়েটির এক বন্ধু মোবাইলে তাকে ‘কথা আছে’ বলে বাড়ির বাইরে ডেকে নেয়।

এরই মধ্যে নিরবের অপর দুই বন্ধু করমজা ফকির পাড়া গ্রামের গোলজার হোসেনের ছেলে বেলাল (১৯) ও একই গ্রামের হাবিরের ছেলে শাহ আলম বিশা (১৯) সেখানে হাজির হয়।

কৌশলে কথারছলে বাড়ির পাশে কবরস্থানের দক্ষিণ পাশে বাঁশ বাগানের মধ্যে নিয়ে জোরপূর্বক মেয়েটিকে তিনজন মিলে ধর্ষণ করে।

এসময় মেয়েটি জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। ধর্ষণকারীরা মেয়েটিকে মৃত ভেবে বাড়ির পাশে একটি মেহগনি গাছের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলিয়ে রাখে।

মেয়েটির গোংরানিতে টের পেয়ে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ।

মেয়েটির জ্ঞান ফিরলে বিষয়টি তার পরিবার ও স্বজনদের জানায়। এ ব্যাপরে মেয়েটির মা বাদী হয়ে তিনজনকে আসামী করে সাঁথিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ অভিযুক্ত শাহ আলম বিশাকে গ্রেফতার করেছে।

সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগের পরপরই একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাবনা পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!